জমিয়ত নির্বাচন করবে ৫ আসনে : জোটবদ্ধভাবে ৩, দলীয় প্রতীকে ২

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ’র ৩ জন প্রার্থী সিলেট-৫, সুনামগঞ্জ-৩ এবং নারায়ণগঞ্জ ৪ সংসদীয় আসনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২৩ দলের চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন। এই ৩ আসনে জমিয়ত প্রার্থীরা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জোটবদ্ধ প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনী লড়াইয়ে শরীক হবেন।

জোট প্রার্থী তিনজন হলেন সিলেট-৫ আসনে জমিয়ত সহসভাপতি শায়খুল হাদীস মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, সুনামগঞ্জ-৩ আসনে জমিয়ত সহসভাপতি ও সাবেক এমপি এডভোকেট মাওলানা শাহিনুর পাশা চৌধুরী এবং নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে জমিয়তের যুগ্মমহাসচিব মুফতী মনির হোসাইন কাসেমী।

এই ৩ আসন ছাড়াও জমিয়তের অতিরিক্ত আরো দুজন প্রার্থী খেজুর গাছ প্রতীক নিয়ে উন্মুক্তভাবে নির্বাচন করতে পারবেন বলে ২৩ দলীয় জোটের সাথে জমিয়তের সমঝোতা হয়েছে।

তারা হলেন, বিবাড়িয়া-২ ও ৩ আসনে জমিয়তের সহসভাপতি মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবীব এবং নীলফামারী-১ আসনে জমিয়তের যুগ্মমহাসচিব মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী। এই দুই আসনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে সুনির্দিষ্ট কোনো প্রার্থী নির্ধারণ করা হবে না। বিএনপি ও জমিয়তের প্রার্থীরা যার যার দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে শরীক হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন।

জানা গেছে, শনিবার (৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় বিএনপি চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই তিন আসনে জমিয়ত প্রার্থীর নামে পৃথক পৃথক চিঠি প্রদান করেন এবং জমিয়ত মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমীর প্রতিনিধি হিসেবে দলের অর্থসম্পাদক মুফতি জাকির হোসাইন কাসেমীর হাতে চিঠি ৩টি হস্তান্তর করেন।

অপরদিকে বিবাড়িয়া ও নীলফামারী-১ আসনে বিএনপি ও জমিয়ত প্রার্থীর নির্বাচনে উন্মুক্ত অংশগ্রহণ বিষয়ে গত ৭ ডিসেম্বর বিএনপি মহাসচিব ও জমিয়ত মহাসচিবসহ উভয় দলের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশানস্থ কার্যালয়ে সমঝোতা হয়।

পূর্ববর্তি সংবাদ৩০০ আসনে ভোটকেন্দ্র ৪০ হাজার ১৮৩
পরবর্তি সংবাদ৪ টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী বাড়ি গেলেন