টঙ্গী জামিয়া উসমানিয়ার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মুফতি আবদুল কাইয়ুমের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের প্রবীণ আলেম, বিশিষ্ট ওয়ায়েজ ও টঙ্গীর জামিয়া উসমানিয়া, সাতাইশ-এর প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হাফেজ মুফতি আবদুল কাইয়ুম রহ. এর জানাযা সম্পন্ন হয়েছে। মাদরাসাসংলগ্ন পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে।

আজ বাদ জোহর জামিয়া উসমানিয়া প্রাঙ্গণে তার জানাযার নামাজ সম্পন্ন হয়। জানাযার নামাজে ইমামতি করেন মরহুমের বড় ছেলে মাওলানা তারিক আবদুল্লাহ।

জামিয়া উসমানিয়ার মুহাদ্দিস, শিক্ষাপরিচালক ও লেখক মুফতি আবু বকর সিরাজী ইসলাম টাইমসকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

মরহুমের জানাযার নামাজে স্থানীয় শীর্ষ আলেমগণ, মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষক ও হাজার হাজার সাধারণ দ্বীনপ্রাণ মানুষ অংশগ্রহণ করেন।

জানাযার জন্য অপেক্ষা …

উল্লেখ্য, মুফতি আবদুল কাইয়ুম দীর্ঘদিন যাবত অসুস্থ ছিলেন। তার কয়েকবার ব্রেন স্টোকও হয়। মৃত্যুর সময় তিনি উত্তরার লুবানা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

গতকাল রাত ১১.৩০ টায় ‍লুবানা হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৬৬ বছর। তিনি ৫ ছেলে, ৬ মেয়ে, স্ত্রী ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মুফতি আবদুল কাইয়ুম চট্টগ্রামের হাটহাজারী ও দারুল উলুম দেওবন্দে লেখাপড়া করেন।

তিনি ১৯৮৯ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ২৬ বছর টঙ্গী জামিয়া উসমানিয়া সাতাইশের প্রিন্সিপালের দায়িত্বপালন করেন। এছাড়াও দীর্ঘদিন তিনি টঙ্গীর অলেম্পিয়া মসজিদের খতিব ছিলেন।

পূর্ববর্তি সংবাদমালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক গ্রেপ্তার
পরবর্তি সংবাদতাবলিগ সংকট নিয়ে হাটহাজারীর বৈঠক : ১ সপ্তাহের মধ্যে দোষীদের গ্রেফতার দাবি