ইমাম-মুয়াজ্জিনের ভাতা ও মাদরাসা শিক্ষার উন্নয়নের অঙ্গীকারসহ বিএনপির ১৯ দফা ইশতেহার

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খতিবদের সম্মানজনক ভাতা ও মাদরাসা শিক্ষার আধুনিকায়নের অঙ্গীকারসহ ১৯ দফা নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। এছাড়াও মুসলিম দেশ ও প্রতিবেশী দেশসমূহের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নের ঘোষণা দিয়েছে দলটি।

মঙ্গলবার (১৮ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর গুলশানে হোটেল লেকশোরে ইশতেহার ঘোষণা করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। দলের চেয়ারপারসন কারাবন্দি খালেদা জিয়ার পক্ষে ইশতেহার পাঠ করেন তিনি।

শিক্ষা বিষয়ক ধারায় বলা হয়েছে, মাদ্রাসা শিক্ষাকে আরও আধুনিক ও যুগোপযোগী করা হবে। তাদের কারিকুলামে পেশাভিত্তিক ও বৃত্তিমূলক বিভিন্ন বিষয়কে অন্তর্ভুক্ত করা হবে এবং সুনির্দিষ্ট নীতিমালার ভিত্তিতে উপজেলা ও ওয়ার্ড পর্যায়ে মসজিদের খতিব, ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের জন্য সম্মানজনক ‘সম্মানীভাতা’ চালু করা হবে।

ইশতেহারে গুরুত্বারোপ করা ১৯ দফার অন্যান্য বিষয়গুলোর মধ্যে রয়েছে- ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণ, অর্থনীতি, মুক্তিযোদ্ধা, যুব নারী ও শিশু, শিক্ষা ও কর্মসংস্থান, জ্বালানি, তথ্য ও প্রযুক্তি, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি, বৈদেশিক ও প্রবাসী কল্যাণ, কৃষি ও শিল্প, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা, প্রতিরক্ষা ও পুলিশ, আবাসন, পেনশন ফান্ড ও রেশনিং ফান্ড প্রতিষ্ঠা, পরিবেশ, পররাষ্ট্র এবং ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়।

তবে বলা হচ্ছে এবারের ইশহেতারে বিএনপি তরুণ ও যুবকদের আকর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। শিক্ষাখাতে জিডিপির ৫ শতাংশ ব্যয় করা, শিক্ষিত তরুণদের চাকরি নিশ্চিত করাসহ তাদের উচ্চশিক্ষার পথ সুগম ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে বিশেষ গুরুত্বারোপ করেছে দলটি।

‘ভিশন ২০৩০’-এর আলোকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ইশতেহার তৈরি করেছে বিএনপি। ‘এগিয়ে যাবো একসাথে, ভোট দেবো ধানের শীষে’- স্লোগানকে সামনে রেখে নির্বাচন উপলক্ষে দলটির ইশতেহার তৈরি করা হয়েছে।

ইশতেহার ঘোষণাকালে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। এছাড়া বিভিন্ন পেশাজীবী ও দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

পূর্ববর্তি সংবাদমাহবুব তালুকদারের বক্তব্য ‘অসত্য’, লেভেল ফিল্ড আছে : সিইসি
পরবর্তি সংবাদরোহিঙ্গা নির্যাতন : সুচির পুরস্কার প্রত্যাহার করছে দ. কোরীয় ফাউন্ডেশন