জনসনের বেবি পাউডারে ক্যান্সারের উপাদান! 

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : জনসন অ্যান্ড জনসনের যে বেবি পাউডার বাংলাদেশের বাজারে বিক্রি হয়, তাতে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী ক্ষতিকর উপাদান আছে কি না, তা পরীক্ষা করে দেখবে দেশের মাননিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসটিআই। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বহুজাতিক এ কোম্পানিটির পাউডারে ক্যান্সার সৃষ্টির উপাদান পাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বিএসটিআই পরিচালক এস এম ইসহাক আলী গণমাধ্যমকে বলেন, জনসনের বেবি পাউডারে ক্ষতিকারক অ্যাজবেস্টস আছে কি না, তা পরীক্ষার জন্য তারা প্রথমে দেশের পরীক্ষাগারে পাঠাবেন। দেশে সম্ভব না হলে সিঙ্গাপুরে পাঠিয়ে পরীক্ষার ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিষয়টি খুবই গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছি। রোববার অফিস খোলার পর বাজার থেকে নমুনা সংগ্রহের ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জনসন অ্যান্ড জনসনের ট্যালকম পাউডার ব্যবহার করে ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় এক মামলার রায়ে যুক্তরাষ্ট্রের একটি আদালত গত জুলাই মাসে ২২ জন নারীকে ৪৭০ কোটি ডলার ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দেয়। ডিম্বাশয়ের ক্যান্সারে আক্রান্ত ওই নারীরা মামলায় অভিযোগ করেন, কয়েক দশক ধরে জনসন অ্যান্ড জনসনের বেবি পাউডার ও অন্যান্য পণ্য ব্যবহার করায় তারা এ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন।

অভিযোগকারী ২২ নারীর মধ্যে ছয় জন ক্যান্সারে ভুগেই মারা যান। জনসন অ্যান্ড জনসনের বিরুদ্ধে এ ধরনের আরও অন্তত নয় হাজার মামলা রয়েছে যুক্তরষ্ট্রের বিভিন্ন আদালতে।

সম্প্রতি রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৯৭১ থেকে ২০০০ সালের মধ্যে বেশ কয়েক দফা পরীক্ষায় অ্যাসবেস্টসের উপস্থিতি ধরা পড়লেও তা গোপন করে বিক্রি চালিয়ে গেছে জনসন অ্যান্ড জনসন।

রয়টার্সের ওই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ভারতের মহারাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন সেখানে জনসন অ্যান্ড জনসনের কারখানা থেকে বেবি পাউডারের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠায়।

ভারতে উৎপাদিত ট্যালকম পাউডার বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, নেপাল, ভুটান, মালদ্বীপেও বিপণন করা হয়।

পূর্ববর্তি সংবাদকারো প্রচার-প্রচারণায় বাধা দেওয়া হচ্ছে না : তোফায়েল
পরবর্তি সংবাদআফগানিস্তান : হার না মানা ৪০ বছরের যুদ্ধের টাইমলাইন