দাবি এক হলে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে বসতেই পারি : চরমোনাই পীর

আতাউর রহমান খসরু ।।

জনগণের ভোটাধিকার আদায়ের জন্য প্রয়োজনে বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গেও বসবেন বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

আজ মঙ্গলবার ঢাকার পুরানা পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নির্বাচন পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে এই মন্তব্য করেন তিনি।

এর আগে তিনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে অবিলম্বে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে পুনঃনির্বাচনের দাবি জানান।

তিনি বলেন, ‘৩০শে ডিসেম্বর প্রহসনের নির্বাচনে জনগণের মতামত প্রতিফলন ঘটেনি। তাই এ নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছি। এবং অনতিবিলম্বে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি।’

এ সময় সাংবাদিকরা তাকে বলেন, বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে আপনাদের দাবি মিলে যাচ্ছে। এখন আপনার এক সাথে আন্দোলন করবেন কি না? উত্তরে ইসলামী আন্দোলনের আমির বলেন, দাবি এক হলে আমরা বসতেই পারি।

তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশের সচেতন জনগণসহ রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে যারা দেশের পক্ষে, জাতির ভোটাধিকার আদায়ের পক্ষে এবং নীতি-আদর্শ বাস্তবায়নের পক্ষে থাকবে তাদের সাথেই আমাদের ঐক্য হতে পারে।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান বলেন, ‘জনগণের ভোটাধিকার একটি মৌলিক দাবি। দেশের দেশের সচেতন জনগণ, যারা দেশের পক্ষে তারা সবাই এই মৌলিক অধিকারের প্রতিষ্ঠা করতে চায়। আমরাও চাই, জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে দেশে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে উঠুক।তবে এখনি কারো সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে বসা বা কারো সঙ্গে অভিন্ন কর্মসূচিতে যাওয়ার পরিকল্পনা আমাদের নেই।’

উল্লেখ্য, আজ ঢাকার কোনো কোনো গণমাধ্যমে ইসলামী আন্দোলন বিএনপি-ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে বসছেন মর্মে খবর প্রকাশিত হয়।

পূর্ববর্তি সংবাদইয়ামেনে বিদ্রোহীরা ক্ষুধার্তদের মুখ থেকে খাবার কেড়ে নিচ্ছে
পরবর্তি সংবাদফেনীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২