শামছুল হক ফরিদপুরী রহ. আমার আধ্যাত্মিক গুরু : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

ইসলাম টাইমস ডেস্ক :  আল্লামা শামছুল হক ফরিদপুরী (ছদর ছাহেব) রহ.-এর কবর জিয়ারত করেছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ ও উলামায়ে কেরামকে নিয়ে তিনি কবর জিয়ারত করেন।

গতকাল শুক্রবার গহরডাঙ্গা মাদরাসায় জুমার নামাজ আদায় করেন এবং বাদ জুমা হজরত শামছুল হক ফরিদপুরীর কবর জিয়ারত করেন। এ সময় তাকে গওহরডাঙ্গা মাদরাসার পরিচালক মুফতি রুহুল আমীন স্বাগত জানান।

কবর জিয়ারত শেষে শেখ আব্দুল্লাহ বলেন, ‘আমি গওহরডাঙ্গা মাদরাসার ছাত্র। হযরত ছদর ছাহেব হুজুরের সাথে আমার সম্পর্ক ছিলো। তিনি ছিলেন আমার আধ্যাত্মিক গুরু। আমি আমার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং আলেম উলামাদের দোয়া নিয়ে মন্ত্রনালয়ের কাজ শুরু করতে চাই।’

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে যে গুরু দায়িত্ব দিয়েছেন তা আমি দেশের আলেম-উলামা, পীর-মাশায়েখদের সাথে পরামর্শ করে আঞ্জাম দিব। আমি দেশের একটি ঐতিহ্যবাহী মাদরাসার ছাত্র ছিলাম এবং দীর্ঘদিন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে কাজ করেছি। আমি সকলের সহযোগিতা নিয়েই এই মন্ত্রনালয় পরিচালনা করব।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, গওহরডাঙ্গা মাদরাসার শিক্ষা সচিব মুফতি নুরুল ইসলাম, কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড গওহরডাঙ্গার মহাসচিব মাওলানা শামছুল হক, তানজিমুল মুদাররিসিন বাংলাদেশের সেক্রেটারী জেনারেল মাওলানা ঝিনাত আলী, কাজুলিয়া মাদরাসার মোহতামিম মাওলানা আবুল কালাম, মুসলিম এতিম খানার মাওলানা হায়াত আলী, কোর্ট মসজিদ মাদরাসার মোহতামিম মুফতি আব্দুল হাফিজ, গওহরডাঙ্গা মাদরাসার মুফতি উসামা আমীন, খাদেমুল ইসলাম বাংলাদেশের মুফতি মোহাম্মদ তাসনীম, মাওলানা ফখরুল ইসলাম, মুফতি হারুনার রশীদ, মাওলানা আনিছুর রহমান, মাওলানা আতাউর রহমানসহ প্রমুখ উলামায়ে কেরাম।

পূর্ববর্তি সংবাদএত বড় ব্যবধান কখনো কারচুপির মাধ্যমে সম্ভব না: জয়
পরবর্তি সংবাদআফ্রিকায়ও সামরিক ঘাঁটি গাড়তে চায় রাশিয়া