সিটি নির্বাচন বর্জন করে সরকারের প্রতি অনাস্থা জানিয়েছে ভোটাররা : খন্দকার মোশাররফ হোসেন

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : জনগণ ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন । তিনি বলেছেন, জনগণ এই নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে ভোটের প্রতি অনাস্থা জানিয়েছে। জনগণ ভোটকেন্দ্রে না গিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের অনিয়মের প্রতিবাদ জানিয়েছে।

এই সময় তিনি ঢাকার দুই সিটির নির্বাচনে যে ৩১ শতাংশ ভোট পড়ার বিষয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেন।

আজ শুক্রবার ঢাকার চন্দ্রিমা উদ্যানে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের ৪০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করা হয়।

সাবেক মন্ত্রী মোশাররফ হোসেন অভিযোগ করেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ৩০ ডিসেম্বর হওয়ার কথা থাকলেও ‘২৯ তারিখ রাতে’ ভোট ডাকাতি হয়েছে। আমরা গতকালও একটি ‘নাটক’ দেখলাম। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন উপনির্বাচনে আমরা দেখলাম, ভোটাররা কেন্দ্রে যায়নি, কেউ ভোট দেয়নি। পত্রিকায় দেখেছি, যারা ভোট নেওয়ার দায়িত্বে ছিলেন, তাঁরা আশ্চর্য হয়েছেন—কেন ভোটার নেই। শুধু যেসব নতুন ওয়ার্ড সৃষ্টি হয়েছে, সেখানে কিছু ভোটার ছিল।’

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ডিএনসিসি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম ৮ লাখ ৪৯ হাজার ৩০২ ভোট পেয়েছেন। এটা কোত্থেকে এল? আমাদের কাছে পরিষ্কার, একাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোট ‘ডাকাতি’ হয়েছিল, জনগণের ভোট দেওয়ার প্রয়োজন হয়নি। এভাবে ৯০ শতাংশ ভোট তারা দিয়েছিল। একই প্রক্রিয়ায় গতকালও ৩১ শতাংশ ভোট পড়েছে। এটাও সরকার তার সিস্টেমের মাধ্যমে সম্পূর্ণ করেছে।

পূর্ববর্তি সংবাদশাহজালাল বিমানবন্দরে বিমানের জরুরি অবতরণ
পরবর্তি সংবাদওআইসির বৈঠকে সুষমা স্বরাজের ভাষণ, পাকিস্তানের বয়কট