সিরিয়া থেকে ৫০ টন সোনা লুট করেছে মার্কিন সেনারা!

ফাইল ছবি

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়া থেকে ৫০ টন স্বর্ণ হাতিয়ে নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী। একাধিক সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে তুরস্কের ডেইলি সাবাহ এমন দাবি করেছে।

দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের ফোরাত নদী তীরবর্তী সিরীয় প্রদেশ দেইর আজজরের বাগাউজ এলাকায় সম্প্রতি আইএসের কাছ থেকে এসব সোনা উদ্ধার করে মার্কিন ও কুর্দি সেনারা। বলা হয়েছে, কয়েক বছর ধরে এসব স্বর্ণ জড়ো করেছিল আইএস।

উদ্ধারকৃত সোনার অল্প কিছু অংশ কুর্দি বাহিনীকে দেয়া হয়েছে। বাকিটা সামরিক বিমানে করে নিজেদের দেশে পাচার করেছে মার্কিনিরা। কুর্দি বাহিনীর বরাত দিয়ে এ খবর প্রথম প্রকাশ করে কুর্দি গণমাধ্যম বাস নিউজ।

নাম প্রকাশ না শর্তে সূত্রটি জানায়, সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ আলেপ্পোয় মার্কিন সেনাঘাঁটি কোবানি থেকে গত সপ্তাহেই এসব সোনা যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানো হয়েছে। কয়েক বছর ধরে সেনাবাহিনী ও সামরিক সরঞ্জাম পরিবহনের জন্য ওই ঘাঁটিটিই ব্যবহার করে মার্কিন সেনারা। সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সানা এ খবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, কোণঠাসা হয়ে সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বাগাউজ এলাকায় কয়েক কিলোমিটারের মধ্যে আটকে পড়েছে আইএস যোদ্ধারা। চলতি সপ্তাহে এ এলাকায় ফের অভিযান শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস (এসডিএফ)। আসন্ন পরাজয়ের মুখে থাকা আইএস যোদ্ধাদের একটি প্রস্তাব দেয় যুক্তরাষ্ট্র। বলে, তোমাদের সব সোনা আমাদের দিয়ে দাও। নতুবা তোমাদের সবাইকে মরতে হবে। প্রস্তাবে রাজি হয় আইএস।

সংবাদ সংস্থা সানা জানিয়েছে, যোদ্ধাদের নিরাপদে পালিয়ে যাওয়ার সুযোগের বিনিময়ে ওই ৫০ টন স্বর্ণ মার্কিন সেনাদের হাতে তুলে দেয় আইএস। এর বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় ২১৩ কোটি ডলার।

দেইর আজজরের স্থানীয় সূত্রের বরাত দিয়ে সানা জানিয়েছে, আইএস যোদ্ধাদের সহায়তায় স্বর্ণভর্তি বড় বড় বাক্স কয়েকটি সামরিক হেলিকপ্টারে করে সরিয়ে নেয় মার্কিন সেনারা। বাক্সগুলো দেইর আজজরের আল সাদাদি শহরে দক্ষিণাংশে আইএস ঘাঁটিতে লুকানো ছিল। আইএস নেতারাই মার্কিন সেনাদের সেখানে নিয়ে যায়। ২০১৫ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে প্রধানত ইরাকের মসুল ও সিরিয়ার বিভিন্ন এলাকা থেকে এসব সোনা জমা করেছে আইএস।

মার্কিন বাহিনী মুক্তিপণ নিয়ে আইএস যোদ্ধা ও গোষ্ঠীটির বহু কমান্ডারকেই নিরাপদে পালিয়ে যাওয়ার সুযোগ দিচ্ছে বলে দাবি করেছে সংবাদ সংস্থা সানা। একই দাবি করেছে ব্রিটেনভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি অব হিউম্যান রাইটস (এসওএইচআর)। সংস্থাটি জানিয়েছে, আইএস মূল্যবান সব সম্পদের বিনিময়ে যোদ্ধা ও কমান্ডারদের নিরাপদে সরিয়ে নিচ্ছে মার্কিন ও কুর্দি সেনারা।

পূর্ববর্তি সংবাদইসরাইলকে গোলান মালভূমি ছাড়তেই হবে: কাতার
পরবর্তি সংবাদআর ঘুষ খাব না : শপথ নিলেন সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তারা