ইসরাইলের হামলায় ফিলিস্তিনের ২ মিলিয়ন ডলারের ক্ষয়ক্ষতি

ফিলিস্তিনে চালানো ইসরাইলী হামলা। ছবি : আনাদলু

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: গাজায় সোমবার রাত থেকে চালানো ইসরাইলি হামলায় ফিলিস্তিনের মোট ২ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছে ফিলিস্তিন। ইসরাইলী সেনাবাহিনী গাজায় অত্যধিক শক্তিশালী ও ভারী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ফিলিস্তিন গণপূর্ত ও হাউজিং মন্ত্রণালয়ের উপসচিব নাজি সারহান। খবর আনাদলুর।

গাজা তথ্য মন্ত্রণালয়ের সদর দফতরে অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে সারহান বলেন, সাম্প্রতিক আগ্রাসনের ফলে প্রায় দেড় মিলিয়ন ডলারের ৩০টি স্থাপনা সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস হয়ে গেছে এবং অর্ধ মিলিয়ন ডলারের প্রায় ৫০০টি বসতবাড়ি আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

সারহান বলেন, ইসরাইলের সেনাবাহিনী অত্যধিক শক্তিশালী ও ভারী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছিল, যা লক্ষ্যবস্তু স্থানগুলির আশেপাশের গুরুতর ক্ষতি করেছে।

এ আগ্রাসনের ফলে শত শত ফিলিস্তিনি তাদের বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছে বলেও জানান নাজি সারহান।

এদিকে গত মঙ্গলবার ফিলিস্তিনের গণপূর্ত মন্ত্রী মুফিদ আল হাসানাহ জানিয়েছিলেন, ইসরাইলের সর্বশেষ বিমান হামলায় গাজা উপত্যকার মোট ৫০০ বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

গত সোমবার সকালে গাজা উপত্যকা থেকে তেল আবিব রকেট হামলা করলে এর জবাবে সন্ধ্যা থেকে দখলদার ইসরাইল বাহিনী প্রচণ্ড হামলা শুরু করে।

মিশরের মধ্যস্থতায় সোমবার রাতে যুদ্ধ বিরতিতে সম্মত হলেও মঙ্গলবার সকালে ফের হামলা শুরু করে ইসরাইল।

মঙ্গলবার সকাল থেকেই সীমান্তের কাছকাছি ইসরায়েলিদের লক্ষ্য করে রকেট হামলার শব্দ শোনা গেছে। হামাসের স্থাপনা লক্ষ্য করে হামলা শুরু করেছে ইসরায়েলি সৈন্যরা।

সোমবার সন্ধ্যা থেকে দখলদার ইসরাইল বাহিনী গাজা উপত্যকার বিভিন্ন এলাকায় অর্ধশতাধিক আক্রমণ করেছে। মঙ্গলবার ও বুধবারেও এ হামলা অব্যাহত ছিল। মঙ্গলবার গভীর রাত ও বুধবার সকালে বাড়িতে বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মোট ১৯ ফিলিস্তিনিকে আটক করেছে ইসরাইল।

পূর্ববর্তি সংবাদবনানীর অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিচয়
পরবর্তি সংবাদহোলি ও পহেলা বৈশাখের মতো উৎসব মুসলমানের হতে পারে না : ড. আ ফ ম খালিদ হোসাইন