বন্ধের দুদিনের মাথায় ফের চালু ভারতের ‘জি নেটওয়ার্ক’-এর সব চ্যানেল

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: বাংলাদেশে বন্ধের দুদিনের মাথায় ফের চালু হলো ভারতের ‘জি নেটওয়ার্ক’-এর সব টিভি চ্যানেল। ১ এপ্রিল দুপুরে হঠাৎ বন্ধ হওয়ার পর আজ আবার সচল হলো ভারতীয় জি নেটওয়ার্কের সব চ্যানেল। ক্যাবল অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তবে কেন বন্ধ ও চালুর এমন নাটকীয়তা হলো তা নিয়ে মুখ খুলছেন না সংশ্লিষ্ট কেউই।

ক্যাবল অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (কোয়াব) প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এস এম আনোয়ার পারভেজ সাংবাদিকদের আজ বুধবার বলেন, ‘১ এপ্রিল দুপুরে জি নেটওয়ার্কের চ্যানেলগুলো বন্ধ হয়ে গেলেও গতকাল (২ এপ্রিল) মধ্যরাত থেকে আবারও সচল হতে শুরু করে। যদিও সেটি ছিল সীমিত আকারে। তবে আজ (৩ এপ্রিল) বেলা ১১টা নাগাদ দেশের সবখানে জি নেটওয়ার্কের চ্যানেলগুলোর সম্প্রচার স্বাভাবিক হয়।’

জানা গেছে, বাংলাদেশে জি নেটওয়ার্কের দুই পরিবেশক সংস্থা ন্যাশনওয়াইড মিডিয়া লিমিটেড ও জাদু ভিশন মিডিয়া লিমিটেডকে গত ১ এপ্রিল তথ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বিদেশি বিজ্ঞাপন প্রচারের বিষয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়। নোটিশ প্রাপ্তির পরই জাদু ভিশন জি নেটওয়ার্কের সব চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করে দেয়।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের সূত্র জানিয়েছে, ক্যাবল অপারেটরদের কাছে এসব চ্যানেলে বাংলাদেশি বিজ্ঞাপন সম্প্রচার হচ্ছে কিনা তা জানাতে বলা হয়েছিল। মূলত এই চিঠি পাওয়ার পরই দেশে জি নেটওয়ার্কের সম্প্রচার বন্ধ হয়ে যায়।

গত ৩০ মার্চ রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে এক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ গুরুত্বের সঙ্গে বিষয়টি মনে করিয়ে দেন।
‘সংকটে বেসরকারি টেলিভিশন’ শীর্ষক ওই গোলটেবিল বৈঠকে তথ্যমন্ত্রী ক্যাবল অপারেটরদের উদ্দেশে বলেন, ‘ডাউনলিংক করে বিদেশি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দেখানো দণ্ডনীয় অপরাধ। শুধু এ সংক্রান্ত আইন যথাযথভাবে মানা হলে বছরে দেশে ৫০০ কোটি টাকা বাড়বে।’

পূর্ববর্তি সংবাদমুসলিম বিদ্বেষী মন্তব্য : সিনেটে তীব্র সমালোচনা অস্ট্রেলিয়ান সিনেটরের
পরবর্তি সংবাদমুরসি ইসরাইলের জন্য হুমকি হয়ে ওঠায় সরিয়ে দেওয়া হয় : ইসরাইলি সেনা কর্মকর্তা