চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধ’, নিহত ১

ইসলাম টাইমস ডেস্ক:  চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রুহুল আমীন (৪৮) নামে ১৬ মামলার এক ‘আসামি’ নিহত হয়েছেন। শুক্রবার রাত ২টার দিকে সদর উপজেলার উকতো গ্রামে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

রুহুল আমীন চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার শান্তিপাড়ার মৃত মফিজ উদ্দীনের ছেলে।

পুলিশের দাবি, নিহত রুহুল জেলা পুলিশের তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। তার নামে জেলার বিভিন্ন থানায় ১৬টি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান জানান, রাত ২টার দিকে গোপন সংবাদ পেয়ে উপজেলার উকতো গ্রামে বাঁশবাগানে অভিযানে যায় সদর থানা পুলিশের একটি টহল দল।

সেখানে ৮-৯ জনকে মাথায় করে বস্তাভর্তি মাদক বহন করতে দেখে পুলিশ। এ সময় তাদের চ্যালেঞ্জ করা হলে তারা পুলিশের ওপর গুলি চালায়।

পুলিশও পাল্টা গুলি করে। একপর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পিছু হটে। এ সময় স্থানীয় জনগণের সহযোগিতায় ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করা হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী রুহুল আমীন বলে শনাক্ত করেন।

তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুই রাউন্ড গুলি, দুটি ধারালো হাঁসুয়া ও এক বস্তা ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় মাদক ব্যবসায়ীদের গুলিতে আহত হয়েছেন উপপরিদর্শকসহ তিন পুলিশ সদস্য – জানান ওসি।

পূর্ববর্তি সংবাদসুদানে সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে লক্ষাধিক জনতার বিক্ষোভ
পরবর্তি সংবাদকুরআনের ঘটনা মনে করিয়ে দেবে দুবাইয়ের কুরআন বিষয়ক পার্ক