বিদেশে নারী শ্রমিক নিয়ে দুশ্চিন্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছেন, বিদেশে নারী শ্রমিক পাঠানোর বিষয়ে কোনো তথ্যই সরবরাহ করে না এজেন্টরা। কারণ তাদের পাঠাতে টাকা লাগে না। ১২০০ এজেন্ট বিদেশে নারী শ্রমিক পাঠায় কিন্তু কাকে কোথায় পাঠালো সে তথ্য মন্ত্রণালয়কে জানায় না। তাই যখন কোনো ঘটনা ঘটে তখন বলা হয় মন্ত্রণালয় খেয়াল করে না। এ বিষয়টি এখন মন্ত্রণালয়ের জন্য একটি ঝামেলা ও দুশ্চিন্তার বিষয়।

শুক্রবার রাতে সিলেটে কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে অনির্বাণ শিল্পী সংগঠনের হেমন্ত উৎসব ও গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রবাসে ৬ লাখ নারী শ্রমিক কাজ করে। এর মধ্যে ৩ লাখ কাজ করে সৌদি আরবে। ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণার তথ্য অনুযায়ী গত চার বছরে ৫১ জন লাশ হয়ে দেশে ফিরেছেন।কী কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে আমরা জানি না। তবে কেউ কেউ বলছেন তারা অনেকেই আত্মহত্যা করেছেন। আর এ বছর প্রায় ৮ হাজার নারী শ্রমিক ফিরেছেন।

মন্ত্রী বলেন, কিছু নারী সংগঠন দাবি করছে বিদেশে নারী শ্রমিক বন্ধ করে দেয়ার জন্য। কিন্তু প্রবাসের নারী সংগঠনগুলো এসব বলে না। শুধু আমাদের দেশেই এসব দাবি ওঠে। তবে দেশের নীতি অনুযায়ী পুরুষ ও মহিলা মধ্যে কোনো বিভেদ করা যাবে না। শুধু পুরুষরাই সুযোগ পাবে তা হবে না।

তিনি বলেন, দেশে বা বিদেশে যারা বাসাবাড়িতে কাজ করেন তারা অনেকেই নির্যাতনের শিকার হন। আর বিদেশে ভাষাগত ও নিয়ম কানুনের জন্য আরও বেশি নির্যাতনের শিকার হন বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী।