করোনাভাইরাস : উহান থেকে ৩৬০ যাত্রী নিয়ে ঢাকার পথে বিমান

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : চীনের উহান থেকে ৩৬০ বাংলাদেশিকে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট। স্থানীয় সময় শনিবার ৯টা ১০ মিনিটের দিকে বিমানের বোয়িং ৭৭৭-৩০০ উড়োজাহাজটি দেশের পথে যাত্রা করে। দেশে ফেরার পর বাংলাদেশিদের প্রথমে কোয়ারেন্টাইনের জন্য কুর্মিটোলা হজ ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হবে।

উহান থেকে আসা বাংলাদেশিদের বিমান থেকে নামিয়ে টার্মিনালের পরিবর্তে সরাসরি হজ ক্যাম্পে নিতে বিআরটিসি বাস প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তাদের ইমিগ্রেশন কার্যক্রমও সেখানে সম্পন্ন করা হবে। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ-উল আহসান জানান, বিমানবন্দরে সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের হজ ক্যাম্পে স্থানান্তর করা হবে।

দেশে ফিরতে উহানের বিমানবন্দরে ১২ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে অপেক্ষা করতে হয় বাংলাদেশিদের। বিমানবন্দরের কার্যক্রম সীমিত থাকায় ইমিগ্রেশন ও অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা এবং ফ্লাইট শিডিউল পেতে দেরি হওয়ায় অপেক্ষা করতে হয় তাদের। এদিকে উহান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এ সময় জুয়েল নামের এক শিক্ষার্থীর জ্বর ধরা পড়ায় তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

হুবেই ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজির শিক্ষার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, ‘আমাদের ক্যাম্পাস থেকে বাসে করে বিমানবন্দরে নিয়ে আসা হয়েছে। বিমানবন্দরে প্রবেশের আগে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। বিমানবন্দরে জনবল কম। অন্য দেশের এয়ারলাইন্সগুলোও লোকজন নিয়ে ফ্লাইট ছাড়ছে। এ কারণে আমাদের দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা করতে হয়েছে।’

উল্লেখ্য, উহানে থাকা ৩৬১ বাংলাদেশিকে নিয়ে আসতে শুক্রবার (৩১ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টা ৫ মিনিটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বোয়িং ৭৭৭-৩০০ উড়োজাহাজ ঢাকা ছেড়ে যায়।

উহান থেকে দেশে ফেরার পর স্বজনদের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পাবেন না বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা। বিমানবন্দর থেকে তাদের নিয়ে যাওয়া হবে কুর্মিটোলা হজ ক্যাম্পে। সেখানে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)-এর কোয়ারেন্টাইন ব্যবস্থায় তাদের রাখা হবে। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ১৪ দিন পর্যন্ত তাদের সেখানে রাখা হতে পারে।

চীন ফেরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা প্রসঙ্গে আইইডিসিআর-এর পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, হজ ক্যাম্পে তাদের রাখা হবে। সেখানে আমাদের চারটি মেডিক্যাল টিম থাকবে। তাদের সেখানে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে।’ স্বাস্থ্য পরীক্ষাসহ ১৪ দিন পর্যবেক্ষণে রাখার পর এসব শিক্ষার্থী বাড়ি ফিরতে পারবেন।

পূর্ববর্তি সংবাদটান টান উত্তেজনার মধ্যে দিয়ে শুরু সিটি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ
পরবর্তি সংবাদপল্লবীতে গভীর রাতে নির্বাচনী ক্যাম্পে মুখোশধারীদের হামলা