‘আমার ফান্ডে প্লেন ভাড়া নেই, ব্যক্তিগত খরচে কেউ ফিরলে পরবর্তী ব্যবস্থা সরকার নেবে’

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: চীন থেকে সরকারিভাবে আর কাউকে দেশে ফেরানো হচ্ছে না জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, আগে আমরা যাদের এনেছি, তিন কোটি টাকা আমার প্লেন ভাড়া দিতে হয়েছে, আমার ফান্ডে আর কোনো পয়সা নাই। এখন কেউ দেশে ফিরতে চাইলে ব্যক্তিগত উদ্যোগে ফিরতে হবে।  তবে তিনি এও বলেছেন, ব্যক্তিগত খরচে কেউ ফিরলে পরবর্তী ব্যবস্থা সরকার নেবে।

শাহবাগে জাতীয় জাদুঘর মিলনায়তনে এক রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী এবং নবীনবরণ অনুষ্ঠানে শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, “প্রশ্ন হচ্ছে আমরা প্লেন পাঠিয়ে ওদের আনব কি-না, জনগণের টাকা খরচ করে ওদেরকে আনব কি-না। আমরা খুব সংবেদনশীল, তাদের বাবা-মা অনেকে বলছেন তাদেরকে নিয়ে আসার জন্য। আমরা তাদেরকে বলেছি, আপনারা যদি নিয়ে আসেন, আমাদের কোনো আপত্তি নাই। তারা আসলে আসতে পারে।

“কিন্তু যে জিনিসটি, আগে আমরা যাদের এনেছি, তিন কোটি টাকা আমার প্লেন ভাড়া দিতে হয়েছে, আমার ফান্ডে আর কোনো পয়সা নাই। সরকার দেবে অবশ্যই। যে জিনিসটি হচ্ছে, তারা আসতে পারে চাইলে।”

যেসব বাবা-মা যোগাযোগ করেছেন, তাদের সন্তানদের নিজ উদ্যোগে দেশে ফেরানোর কথা বলা হয়েছে বলেও এদিন জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, আমরা বলেছি আপনারা যদি আনতে চান… দেখেন আমরা এখনো ফ্লাইট ক্যানসেল করিনি। বিশেষ করে কুনিমং এবং গুয়াংজু থেকে চায়নিজ ফ্লাইট আসছে।

আরেক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, অর্থই প্রধান সমস্যা নয়। আগের মানুষগুলো যদি হজ্জক্যাম্প থেকে বের না হয়, বাকিদের কোথায় রাখব? আমরা বলেছি, তোমরা যদি আসতে চাও, ডেফিনিটলি আমরা চেক করে, কোয়ারেন্টিনে পৌঁছায়ে দেব।

পূর্ববর্তি সংবাদআবারও ক্ষমতায় কেজরিওয়াল, ৭ রাজ্যের পর দিল্লিতেও গেরুয়া বাহিনীর পরাজয়
পরবর্তি সংবাদইসির প্রতি অনাস্থা নিয়েই বিএনপি সব নির্বাচনে অংশ নিবে : ফখরুল