হোমনায় করোনার উপসর্গ নিয়ে শিশুর মৃত্যু

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: কুমিল্লার হোমনায় করোনার উপসর্গ নিয়ে নুসরাত (তাথৈ) নামে সাড়ে চার বছরের এক মেয়ে শিশুর মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার মাথাভাঙা ইউনিয়নের বিজয়নগর থেকে তাকে সর্দি, জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে শুক্রবার ভোরে পরিবারের সদস্যরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। প্রাথমিকভাবে করোনা সন্দেহ হলে শিশুটিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় বিজয়নগরের ওই বাড়িসহ পার্শ্ববর্তী কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করেছে স্থানীয় প্রশাসন। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবদুছ ছালাম সিকদার।

শিশুর পরিবারের সদস্যদের বরাত তিনি আরো জানান, তাথৈ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার মায়ারামপুর গ্রামের নূর মোহাম্মদ (সুমন মিয়ার) মেয়ে। তারা ঢাকায় থাকত। শিশুটির মা অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় ২০/২৫ দিন আগে ঢাকা থেকে বাবার বাড়ি হোমনা উপজেলার মাথাভাঙা ইউনিয়নের বিজয়নগর গ্রামে আসেন। কিছুদিন আগে শিশুর নানাও কক্সবাজার থেকে বাড়ি এসেছেন। কয়েক দিন আগে থেকেই শিশুটি সর্দি ও জ্বরে ভুগছিল। স্থানীয়ভাবে তার চিকিৎসা করা হয়। কিন্তু শুক্রবার ওই শিশুর প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার পর পর্যবেক্ষণ করে করোনার উপসর্গ থাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। পরে শুনেছি পথিমধ্যেই শিশুটি মারা গেছে।

তিনি জানান, শিশুটির করোনার নমুনা সগ্রহ করা হয়েছে। পজিটিভ এলে বাকি সদস্যদেরও নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাপ্তি চাকমা বলেন, করোনার উপসর্গ নিয়ে শিশুটি মৃত্যুবরণ করায় ওই বাড়িসহ আরো কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন থেকে সেখানে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হবে। শিশুটির করোনা রয়েছে কি না তা জানতে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। করোনা পজিটিভ এলে পুরো গ্রামকে লকডাউন করা হবে।

স্থানীয়ভাবে দাফনে ভয়ে কেউ এগিয়ে না আসায় করোনা বিষয়ক নির্ধারিত কমিটির মাধ্যমে শিশুটির দাফন করা হয়েছে বলে জানান ইউএনও।

পূর্ববর্তি সংবাদকুষ্টিয়ায় চিকিৎসক ও নার্সদের জন্য এন-৯৫ লেখা কাপড়ের নকল মাস্ক!
পরবর্তি সংবাদআ. লীগের ‘ত্রাণ কমিটি’ গঠন : টিআইবির সতর্ক প্রতিক্রিয়া