পাটগ্রামে বিএসএফের রাবার বুলেটে ৫ বিজিবি সদস্য আহত

ইসলাম টাইমস ডেস্ক:  লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থলবন্দর সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) শটগানের (রাবার বুলেট) গুলিতে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) এক সদস্যসহ পাঁচ বাংলাদেশি আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা বলছেন, ভারতীয় একজন মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে বিএসএফ সদস্যরা বাংলাদেশে ঠেলে পাঠানোর চেষ্টা করছিল। এতে বাংলাদেশিরা বাধা দিলে বিএসএফ প্রায় সাত-আটটি রাবার বুলেট ছোড়ে। শটগানের গুলিতে আহত ব্যক্তিরা হলেন, বুড়িমারী বিজিবি ক্যাম্পের বিজিবি সদস্য খোকন মিয়া, বুড়িমারী এলাকার মো. রশিদুল ইসলাম (৩৫), মো. আরেফ হোসেন (১৮), আজিজুল ইসলাম (৬০) ও ফিরোজা বেগম (৬৫)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও সীমান্ত এলাকার লোকজন জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে পাঁচটা থেকে ছয়টার দিকে বুড়িমারী স্থলবন্দরের আন্তর্জাতিক অভিবাসন চৌকির (আইসিপি) পাশ দিয়ে ভারতীয় একজন মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে বাংলাদেশে পাঠানোর চেষ্টা করে ভারতীয় ১৪৮ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের চ্যাংড়াবান্দা বিএসএফ কোম্পানি সদরের একটি দল। এ সময় বিএসএফের দলটি ওই ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে নিয়ে পাথর ছুড়তে ছুড়তে শূন্যরেখা থেকে বাংলাদেশের কমপক্ষে ১০০ গজ অভ্যন্তরে অনুপ্রবেশ করে। এ সময় জিরোপয়েন্টে দায়িত্বরত বিজিবি সদস্য ও সীমান্তের লোকজন বাঁধা দিলে তাঁরা পিছু হটে।

এরপর চ্যাংড়াবান্দা বিএসএফ ক্যাম্প থেকে আরও প্রায় ৭০-৮০ সদস্যর একটি দল আবারও ওই মানসিক ভারসাম্যহীন ব্যক্তিকে নিয়ে বাংলাদেশের ভূখণ্ডে প্রবেশের চেষ্টা করলে আবারও বাঁধা দেয় বিজিবি ও সীমান্ত এলাকার মানুষেরা। পরে শটগানের অন্তত আট রাউন্ড গুলি ছুড়তে ছুড়তে ভারতীয় ভূখণ্ডে ফিরে যায় বিএসএফ।

বুড়িমারী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এএস এম নেওয়াজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিএসএফ সদস্যরা ভারত থেকে মানসিক ভারসাম্যহীন এক ব্যক্তিকে দেশে ঠেলে দেওয়ার চেষ্টা করে। এতে বাঁধা দিলে নিরস্ত্র গ্রামবাসীর ওপর তারা গুলি চালায়।

পূর্ববর্তি সংবাদরাষ্ট্রপতির ক্ষমায় ফাঁসি থেকে মুক্ত হয়ে আবার খুনে জড়ালেন সাবেক যুবলীগ সভাপতি
পরবর্তি সংবাদকরোনা ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৯০ হাজার ছাড়িয়েছে