সীতাকুন্ডে সিগারেটের ধোয়া নিয়ে বিতর্কের জেরে দুই বন্ধুকে হত্যা করেছে কিশোর গ্যাং

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: সীতাকুন্ডে সিগারেটের ধোয়ার ফু দেওয়ার মতো তুচ্ছ ঘটনায় কিশোর গ্যাংয়ের হাতে মর্মান্তিকভাবে হত্যার শিকার হয়েছে শাহিন ও জাহেদ নামে দুই বন্ধু।

চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার রাত ২টার দিকে জাহেদ ও শুক্রবার সকাল ৮টার সময় শাহিনের মৃত্যু হয়।

স্থানীয়রা যায়, বুধবার সন্ধ্যার সময় পৌর সদরের দক্ষিণ মহাদেবপুর ভূঁইয়া পাড়ার রেল বিটে আড্ডারত ছিল কিশোরদের একটি গ্যাং। তারা সেখানে ধুমপান করছিল। এ সময় ইরফান (১৭) নামে একজনের মুখে সিগারেটের ধোয়ার ফু দেয় অপর জন। তাদের মধ্যে এ নিয়ে ঝগড়া ও হাতাহাতি হয়।

সীতাকুন্ড মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ফিরোজ হোসেন মোল্লা বলেন, পরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাদের দুই জনের মধ্যে বিষয়টি মিমাংশা করে দেয়ার উদ্যোগ নেয় স্থানীয় এক বড় ভাই। সেই মতে তারা পুনরায় এক বৈঠকে মিলিত হয়। সেই বৈঠকে ইরফানের পক্ষে নিহত শাহিন ও জাহেদ যোগ দেন। শাহিন ও জাহেদের বৈঠকে যোগ দেয়া নিয়ে কাথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। কিশোর গ্যাং এর ছুরির কোপে গুরুতর আহত হন ভূইয়া পাড়া এলাকার সুজনের ছেলে শাহিন (২০) ও আমিরাবাদ এলাকার আব্বাছের ছেলে জাহেদ (২২)। স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করে।

চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মোহাম্মদ আলাউদ্দিন বলেন, শাহিন ও জাহেদের পেটে ছুরির জখম নিয়ে রাতে হাসপাতালে ভর্তি হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যায়।

স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর শফিউল আলম মুরাদ বলেন, জনকৈ জামালের এক ছেলে এ ঘটনায় সম্পৃক্ত। তাদের পুরো পরিবারও এ ঘটনায় জড়িয়ে পড়লে কিশোর গ্যাং দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়ে। এতে সংঘর্ষ রক্তক্ষয়ী হয়ে ওঠে।

পূর্ববর্তি সংবাদপঞ্চগড়ে এবার করোনা আক্রান্ত হল এক কিশোর, বাড়ি লকডাউন
পরবর্তি সংবাদযথাযথ প্রস্তুতি না থাকায় দেশে করোনা ভয়াবহ হয়ে উঠছে: রিজভী