করোনা কালে মন্ত্রী পরিবারের মিডিয়ায় সাংবাদিক ছাঁটাই

ইসলাম টাইমস ডেস্ক :  মহামারীর মধ্যেই বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর মালিকানাধীন গাজী টেলিভিশন ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল সারাবাংলাডটনেট থেকে এক ডজনেরও বেশি সাংবাদিককে ছাটাই করা হয়েছে।

জাতীয় পার্টির নেতা ও কুরিয়ার সার্ভিস ব্যবসায়ী সালাউদ্দিন আহমেদের মালিকানাধীন এসএ টেলিভিশন থেকেও প্রায় অর্ধশত সাংবাদিক চাকরিচ্যুত হয়েছেন।

এছাড়াও আলোকিত বাংলাদেশ এবং অনলাইন নিউজ পোর্টাল আগামী নিউজেও ছাঁটাইয়ের ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে দৈনিক মানবজমিন, দৈনিক বাংলাদেশের খবর, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ, দ্য ইন্ডিপেনডেন্ট পত্রিকাসহ ঢাকা ও ঢাকার বাইরের বেশ কয়েকটি সংবাদপত্র ছাপা বন্ধ রেখে শুধু অনলাইন সংস্করণ চালু রেখেছে।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব গণমাধ্যমের জন্যও সঙ্কট বয়ে এনেছে। তবে তারপরও সংবাদকর্মীদের ছাঁটাই না করার আহ্বান জানিয়েছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

পাটমন্ত্রীর প্রতিষ্ঠান গাজী টেলিভিশনে কোনো নোটিস ছাড়াই শুক্রবার দুইজন নিউজরুম এডিটরসহ কয়েকজন সংবাদকর্মীকে চাকুরিচ্যুত করা হয় বলে জানা গেছে।

এর আগে মার্চের মাঝামাঝিতে সারাবাংলাডটনেট-এর বার্তা সম্পাদকসহ চারজন সংবাদকর্মীকে ইস্তফা দিতে কর্তৃপক্ষ বাধ্য করায় প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী সম্পাদকও ইস্তফা দেন।

তার আগে মার্চের শেষ সপ্তাহে এসএ টেলিভিশনের ৩২ জন এবং অনলাইন নিউজ পোর্টাল আগামী নিউজের সাতজন সংবাদকর্মীকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

এসএ টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সালাউদ্দিন আহমেদ বলেন, “করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে না, যাদের ছাঁটাই করা হয়েছে তাদের কর্মমূল্যায়ন করে আগেই ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া ছিল। তাদের প্রতিষ্ঠানের কাছে কোনো বকেয়া নেই।”

সারা দেশ থেকে এখন ১ হাজার ২৫০টি পত্রিকা প্রকাশিত হচ্ছে বলে তথ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য। সম্প্রচারে রয়েছে ৩০টি টেলিভিশন।

এভাবে সাংবাদিকদের চাকরিচ্যুতির প্রতিবাদে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) এবং ঢাকা রিপোর্টা্র্স ইউনিটিসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠন উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

 

পূর্ববর্তি সংবাদরাউজানে সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবলীগ নেতা নিহত
পরবর্তি সংবাদদেশে করোনায় মৃত্যুর চেয়ে সুস্থ হওয়ার হার কম: কারণ কী?