৭ শতাধিক সন্দেহভাজন ব্যক্তির ঢাকা অনুপ্রবেশ রুখে দিয়েছে পুলিশ

ইসলাম টাইমস ডেস্ক:  সোমবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঢাকা-ধামরাই-মির্জাপুর আঞ্চলিক মহাসড়ক হয়ে উত্তরবঙ্গ থেকে থেকে ১১টি বাসে করে আসা ৭ শতাধিক ব্যক্তি শ্রমিক বেশে রাজধানীতে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করলে  আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সহায়তায় পুলিশ তাদের রুখে দেয়।

তাদের ছিল ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই) পরিহিত। তাদের সঙ্গে ছিল ধান কাটার কাস্তে, ধান বহনের বাইক (বাঁশ দিয়ে তৈরি) ও রশি। তারা নিজেদের ধানকাটা শ্রমিক পরিচয় দেয়।

রাজধানীতে অনুপ্রবেশকালে কর্তব্যরত কাওয়ালীপাড়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক রাসেল মোল্লা, বালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুল গণি সুমন, ধামরাই উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি ও বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আহমদ হোসেনসহ আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা ওই ১১টি গাড়ি গতিরোধ করে তল্লাশি চালান। তাদের চেহারা ও গতিবিধি সন্দেহজনক হলে তাদেরকে অনুপ্রবেশ করতে না দিয়ে ওই ১১টি বাস ফেরত পাঠায় পুলিশ।

পরিদর্শক রাশেল মোল্লা বলেন, লকডাউন কার্যকরে পুলিশ জনতা মিলেই দায়িত্ব পালন করা হচ্ছে। তাই সহজেই ধানকাটা শ্রমিক পরিচয়ে রাজধানীতে অনুপ্রবেশকারী ১১টি বাস ফেরত পাঠানো সহজ হয়েছে।

বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আহমদ হোসেন বলেন, শুধু চেয়ারম্যান ও নেতা হিসাবে নয়, একজন সুনাগরিক হিসাবেই আমি আমার এলাকা নিরাপদ রাখতে চাই। তাই সার্বক্ষণিক নিজে উপস্থিত থেকে ও জনবল দিয়ে পুলিশকে সহায়তা প্রদান করে আসছি।

পূর্ববর্তি সংবাদকরোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ২ লাখ ১১ হাজার ৫৩৭ জন
পরবর্তি সংবাদপয়লা মে থেকে দোকান মার্কেট খুলতে চায় মালিক সমিতি