ভার্চুয়াল আদালতে বিচার শুরু, কাল বসছে আটটি কোর্ট

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে দেশের আদালতে বিচার কার্যক্রম শুরু হয়ে গেছে। এরইমধ্যে হাইকোর্টের ফৌজদারি ও রিট বেঞ্চে বেশ কয়েকটি মামলা শুনানির আবেদন করেছেন কয়েকজন আইনজীবী। রোববারই বিচারিক আদালতে শুধু জরুরি জামিন আবেদনের ভার্চুয়াল শুনানির অনুমতি দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টের ফুলকোর্ট সভা। আর হাইকোর্টে ভার্চুয়াল আদালত পরিচালনায় গঠন করা হয়েছে তিনটি বেঞ্চ। সেখানে অতি জরুরি রিট এবং দেওয়ানি ও ফৌজদারি মামলার শুনানি করা যাবে। ধারাবাহিকভাবে, আগামীকাল থেকে ঢাকা মহানগর, জেলা দায়রা জজ ও সিএমএম কোর্টসহ ৮টি ভার্চুয়াল আদালত চালুর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাস প্রকোপের কারণে সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর বন্ধ হয় বিচার বিভাগও। তবে প্রায় ৩৩ লাখ মামলার জট থাকায় চলমান অচলাবস্থায় তা আরো প্রকট হবে বলে শঙ্কা জানান আইনজীবীরা। এ অবস্থায় শনিবার ভার্চুয়াল কোর্ট চালু করতে জারি হয় রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ। রোববার সুপ্রিম কোর্টের ফুলকোর্ট সভায় তৈরি হয়েছে বিচারকাজ পরিচালনার নির্দেশনা। উচ্চ ও বিচারিক আদালতে এখন ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমেই বিচার হবে।

তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহার করে বিচার কাজে অংশ নিতে আইনজীবীদের জন্যও ম্যানুয়াল তৈরি করেছে সুপ্রিম কোর্ট। বিচারিক আদালতে শুধু জরুরি জামিনের মামলা শুনানির জন্য অনলাইনে আবেদন করতে হবে। এ জন্য নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে আইনজীবীদের। একে দেশের বিচার বিভাগের ইতিহাসে যুগান্তকারী পদক্ষেপ বলে অভিহিত করছেন আইনমন্ত্রী।

আপিল বিভাগের মামলা শুনানির জন্য চেম্বার জজ হিসেবে মনোনীত হয়েছেন বিচারপতি মো. নুরুজ্জামান। সোমবার হাইকোর্টের ফৌজদারি ও রিট বেঞ্চে শুনানির জন্য অনলাইনে আবেদন করেছেন বেশ কয়েকজন আইনজীবী। ভার্চুয়াল কোর্টে কাজ করতে মনোনীত করা হয়েছে রাষ্টপক্ষের ১০ আইনজীবীকে।

দীর্ঘ দিন আদালত বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে ছিলেন বিচারপ্রার্থীরা। এ থেকে উত্তরণে ডিজিটাল মাধ্যমে বিচার চালাতে অধ্যাদেশের খসড়া মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করে আইন মন্ত্রণালয়। এর প্রেক্ষিতেই জারি হয় তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে ভাচুর্য়াল কোর্টে বিচারের অধ্যাদেশ দেয় সর্বোচ্চ আদালত।

পূর্ববর্তি সংবাদঐতিহাসিক বদর যুদ্ধ: ঈমানি চেতনার অপূর্ব পাঠশালা
পরবর্তি সংবাদগাজীপুরে সিমেন্টবাহী ট্রাক উল্টে নিহত ২