ব্রিটেনকে কাজে ফিরতে আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী বরিস

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: ব্রিটেনের অর্থনীতিতে গতি ফেরাতে কর্মজীবীদের কাজে ফেরার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

শুক্রবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে করোনা পরিস্থিতিতে সরকারের নতুন পরিকল্পনার কথা ঘোষণা দিয়ে এই আহ্বান জানান তিনি।

আসছে বড়দিনের আগেই ব্রিটেনকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনা ও ঝিমিয়ে পড়া অর্থনীতি চাঙ্গা করতে উদ্যোগ শুরু করেছে সরকার। সেই লক্ষ্যে লকডাউনও শিথিলের ঘোষণাও দেয়া হয়েছে।

বরিস বলেন, মানুষের প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণ ছাড়া অর্থনীতির গতি ফেরানো সম্ভব না। এদিকে বরিসের সরকারের বিরুদ্ধে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা গণনায় বড় অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

এক গবেষণা রিপোর্টে বলা হয়েছে, করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তি সুস্থ হওয়ার পর অন্য কোনো রোগে মারা গেলেও তা করোনার মৃত্যু হিসেবেই নথিভুক্ত করছে ব্রিটিশ স্বাস্থ্য বিভাগ। খবর বিবিসির।

করোনাভাইরাসের কারণে তিন মাস লকডাউনে থাকায় গত মাসের মাঝামাঝি সময় থেকেই ব্রিটেনের জনজীবন আস্তে আস্তে স্বাভাবিক হতে শুরু করে।

এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ডিসেম্বরের আগেই স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনার পরিকল্পনা ঘোষণা করেন বরিস। এই পরিকল্পনার আওতায় আগামী ২৫ জুলাই থেকে ইনডোর জিম, পুলসহ অন্যান্য খেলাধুলা পুনরায় শুরুর ঘোষণা দেন। অক্টোবর থেকে ক্রীড়ামোদিরা স্টেডিয়ামে যেতে পারবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

ভাষণে সাবধানতা মেনে বাস, ট্রেন, ট্রামসহ গণপরিবহন ব্যবহার ও কর্মীদের কাজে ফেরার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। আগামী ১ আগস্ট থেকে কর্মীদের কাজে ফেরানোর ব্যাপারে নতুন দিকনির্দেশনা ঘোষণা দেবে সরকার।

সেই ঘোষণা কর্মীদের কীভাবে কাজে ফেরানোর পরিবেশ নিশ্চিতে কর্তৃপক্ষের প্রতি নির্দেশনাও থাকবে। জনসন আরও জানান, আগামী মাস থেকে ৩০ জনের বেশি মানুষের উপস্থিতিতে বিয়ের অনুষ্ঠানের অনুমতি দেবে সরকার। সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল, নার্সারি ও কলেজ খুলবে।

 

পূর্ববর্তি সংবাদপোশাক খাতে স্থগিত রপ্তানি আদেশের ৮০ ভাগই ফিরে আসছে
পরবর্তি সংবাদকরোনার ভয়ে বাহরাইনে ফের বাড়ান হল মসজিদ বন্ধের সময়সীমা