ফরিদপুরে পদ্মার পানি বিপদসীমার ওপরে, দুই উপজেলায় সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: গত ১২ ঘণ্টায় ফরিদপুরে পদ্মা নদীর পানি আরও বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ১০৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পানি বৃদ্ধির ফলে জেলা সদর থেকে চরভদ্রাসন ও সদরপুর উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

ওই সড়কের কয়েক স্থান পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে। এছাড়া ওই সড়কের বিভিন্ন অংশে ফাটল দেখা দেওয়ায় হুমকির মুখে রয়েছে।

সোমবার সকালে ফরিদপুর শহরের বর্ধিত পৌরসভার ২৫নং ওয়ার্ডে একটি পাকা সড়ক পানি চাপে ভেঙে গেছে।

ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার জানান, জেলার ৩০টি ইউনিয়নে মানুষ পানিবন্দি হয়ে রয়েছে। তাদের জন্য সরকারি খাদ্য সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত উপজেলাগুলোতে ২শ মেট্রিকটন চাল ও নগদ তিন লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, জেলার নিম্নাঞ্চলের অনেকগুলো আঞ্চলিক সড়কে পানি উঠে যাওয়ায় যান চলাচল সাময়িক বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

ফরিদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সুলতান মাহমুদ জানান, ফরিদপুরের গোয়ালন্দ পয়েন্টে পদ্মার পানি ৩ সেন্টিমিটার বেড়ে এখন বিপদসীমার ১০৫ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এর ফলে প্রতিদিনই নতুন নতুন এলাকায় পানি প্রবেশ করেছে। তীব্র ভাঙন দেখা দিয়েছে মধুমতির নদীর আলফাডাঙ্গা ও মধুখালী উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন।

আলফাডাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম জাহিদ হাসান জানান, এবারের বর্ষা মৌসুম শুরুর পর থেকেই এ উপজেলার তিনটি ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামজুড়ে মধুমতি নদীর ভাঙন শুরু হয়েছে। প্রতিদিনই মানুষতাদের ভূসম্পত্তি হারাচ্ছে।

সরকারিভাবে বালুরবস্তা ফেলা হচ্ছে তবে তা খুব একটা কাজে আসছে না। তিনি দাবি জানিয়ে বলেন, স্থায়ী বাঁধ দেওয়া ছাড়া ভাঙন রোধ করা যাবে না।

পূর্ববর্তি সংবাদঅসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি সৌদি বাদশাহ
পরবর্তি সংবাদকালীগঞ্জে হিন্দু জুয়েলারীর সৎকারে কেউ এগিয়ে আসেনি ইমাম পরিষদ ছাড়া