আমিরাতে আগ্নিকাণ্ড: সব হারিয়ে নিঃস্ব অনেক বাংলাদেশি দোকান মালিক

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: সংযুক্ত আরব আমিরাতের আজমান এলাকার মার্কেটে ভয়াবহ আগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় যারা সব হারিয়েছেন তাদের মধ্যে বেশ কয়েক জন বাংলাদেশি প্রবাসী আছেন।

আমিরাতের ইংরেজি দৈনিক দ্য ন্যাশনালে দোকান মালিকদের দুর্দশা সংক্রান্ত যে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে, সেখান থেকে এই প্রবাসীদের কথা জানা গেছে। প্রতিবেদনে মোহাম্মদ আরিফ ইসলাম নামের ২৫ বছর বয়সী এক বাংলাদেশি যুবকের কথা বলা হয়েছে, যার একটি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

‘আমাদের সব শেষ হয়ে গেল। ১১ বছর ধরে এই দোকান দিয়ে আমাদের বড় পরিবার চলছিল,’ জানিয়ে আরিফ বলেন, ‘এখন কিছু থাকলো না।’

‘এই ব্যবসা আমার মা, ভাই, বোনসহ আরো অনেককে বাঁচিয়ে রেখেছিল। এখন আমাদের কী হবে।’

বুধবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে আজমানের শিল্পাঞ্চলে অবস্থিত ওই মার্কেটে আগুন লাগে। সেখানে কয়েক জন বাংলাদেশির যেমন দোকান ছিল, তেমনি আরও অনেকে কাজ করতেন। এখন সবার আয়ের পথ বন্ধ হয়ে গেল।

৩৭ বছর বয়সী মোহাম্মদ হুসেইন একটি কার্পেটের দোকানে এক দশকের বেশি সময় ধরে কাজ করছিলেন। আগুন লাগার সময় মার্কেটের পাশে ছিলেন তিনি।

বাংলাদেশি এই প্রবাসী বলেন, ‘আমি ভীষণ হতাশ হয়ে পড়েছি। এখানে আমরা প্রায় ৬০০ মানুষ কাজ করি। করোনার কারণে ঠিকমতো পারিশ্রমিক পাইনি। এখন তো চাকরিটাই চলে গেল।’

আরো পড়ুন: বৈরুতের পর এবার আমিরাতের বাজারে ভয়াবহ আগুন