ছুটি শেষে ঝুঁকি নিয়ে রাজধানীমুখী কর্মজীবী মানুষ, দৌলতদিয়ায় তীব্র যানজট

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: ঈদের ছুটি শেষে রাজধানীর কর্মস্থলগামী মানুষের চাপ বেড়েছে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাটে। আজ শ্রক্রবার সকাল থেকেই দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে শত শত নারী-পুরুষ বাস, ট্রাক ও অন্যান্য ছোট ছোট গাড়িতে করে দৌলতদিয়া ঘাটে এসে ভিড় করছে। কারণ আজ শুক্রবারই বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর দৌলতদিয়া এবং অপরদিকে সরকারি নির্দেশনা জারি হয়েছে আর বাসা থেকে অফিসের কাজ করা যাবে না।

আর এসব ছোট গাড়িতে ঝুঁকি নিয়ে ঘাটে আসা যাত্রীদের ২/৩ গুন বেশি ভাড়া গুনতে হচ্ছে। তবে এ ঝুকিপূর্ণ যাত্রায় নারী-শিশু ও বষস্কদের নিদারুন কষ্ট ভোগ করতে হচ্ছে। তবু শুক্রবারের মধ্যেই ঢাকায় ফিরতে হবে সবাইকেই। তাই এই ঝুঁকি নিয়ে ঢাকায় ফেরা।

এদিকে, মাওয়া ঘাটের ফেরি চলাচল সীমিত থাকায় ওই রুটে সব বাস ও ট্রাক দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে নদী পার হবার জন্য বৃহস্পতিবার থেকে একযোগে আসায় দৌলতদিয়া ঘাটে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসির দৌলতদিয়া ঘাট ব্যাবস্থাপক আব্দুল্লা রনি জানান, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে এখন মাত্র ১৫টি ফেরি চালু আছে। এছাড়া নদীতে তীব্র স্রোত থাকায় ফেরি পার হতে সময় লাগছে দ্বিগুন। তাই দৌলতদিয়া ঘাটে এখন একটু যানজট চলছে।

দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার জুড়ে বাসের সিরিয়াল থাকায় যাত্রীদের পথেই নামিয়ে দেয়া হচ্ছে। ফলে বাধ্য হয়েই যাত্রীরা পায়ে হেটে ফেরি ও লঞ্চে উঠছে।

অপরদিকে দৌলতদিয়া ঘাটে যানজট এড়াতে ও অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যাত্রীবাহী বাস পার হতে রাজবাড়ী পুলিশ প্রশাসন ঘাট থেকে আট কিলোমিটার দূরে গোয়ালন্দ মোড়ে রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া সড়কেই পণ্যবাহী ট্রাকগুলো আটকিয়ে দিয়েছে।

এই যানজট আগামীকাল শনিবার পর্যন্ত থাকতে পারে বলে ঘাটের ফেরি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

পূর্ববর্তি সংবাদসরকারবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল বৈরুত
পরবর্তি সংবাদনিউইয়র্কে একই দিনে তিন তরুণের মৃত্যু, বাংলাদেশি কমিউনিটিতে শোকের ছায়া