ফেনীতে মাদক মামলায় পুলিশের এসআই ও আইনজীবীর বিচার শুরু

ইসলামট টাইমস ডেস্ক: ফেনীতে মাদক আইনে পুলিশ কর্মকর্তা এএসআই মাহফুজুর রহমান ও আইনজীবী জাকির হোসেনসহ ১৪ জনের বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছে আদালত।

৬ লাখ ৮০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও নগদ ৭ লাখ টাকা উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশের এসআই মাহফুজুর রহমান ও গাড়ি চালক জাবেদ আলীকে গ্রেফতার করা হয়।

মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ ড. বেগম জেবুন্নেছা আলোচিত এ মামলায় অভিযোগ গঠন করে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরুর জন্য আগামী ১০ ডিসেম্বর দিন ঠিক করে দেন। পাবলিক প্রসিকিউটর হাফেজ আহম্মদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুলী হাফেজ আহম্মদ জানান, ১৪ আসামির ৫ জন গ্রেফতার ও ৪ জন উচ্চ আদালত থেকে জামিনে রয়েছেন। অপর ৫ জন পলাতক। অভিযোগ গঠনের সময় আসামিপক্ষের আইনজীবীরা ৭ আসামিকে অব্যাহতির আবেদন জানালে দায়রা জজ তা না মঞ্জুর করেন।

এই মামলায় এএসআই মাহফুজুর রহমান ও গাড়ি চালক জাবেদ আলী ছাড়াও অভিযুক্ত অপর আসামিরা হলেন- অ্যাভোকেট জাকির হোসেন, মো. আশিকুর রহমান, গিয়াস উদ্দিন, সালেহ আহম্মদ, আবদুল মোতালেব, কাশেম আলী, শাহীন, মো. শাহিন মিয়া, মো. তোফাজ্জল হোসেন, মো. বিল্লাল হোসেন, ফরিদুল আলম, মো. জাফর এবং মো. রুবেল সরকার।

আাদালত সূত্র জানায়, ২০১৫ সালের ২০ জুন শহরতলীর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের লালপোলে র‌্যাবের একটি দল ৬ লাখ ৮০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও নগদ ৭ লাখ টাকা উদ্ধার করে। এ ঘটনায় পুলিশের এসআই মাহফুজুর রহমান ও গাড়ি চালক জাবেদ আলীকে গ্রেফতার করা হয়। র‌্যাবের পক্ষ থেকে নায়েক সুবেদার মনিরুল ইসলাম বাদী হয়ে মাদক আইনে মামলা দায়ের করেন।

২০১৫ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। আদালত সন্তুষ্ট না হয়ে পুনঃতদন্তের জন্য অপর একজনকে দায়িত্ব দেন।

২০১৬ সালের ২২ মে দ্বিতীয় তদন্ত কর্মকর্তা অভিযোগপত্র জমা দিলে আদালত তাতেও সন্তুষ্ট হয়নি। একপর্যায়ে সিআইডিকে তদন্তের দায়িত্বভার দেওয়া হলে ১৪ জনকে অভিযুক্ত করে ২০১৯ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর অভিযোগপত্র জমা দেয়।

এস এন

পূর্ববর্তি সংবাদআদালতে খালাসির পরও পাসপোর্ট জব্দ ভারতে আটকে পড়া ৮ দেশের তাবলীগ সাথীদের 
পরবর্তি সংবাদ‘অপপ্রচার করা হচ্ছে আমাদের মহানবীর বিরুদ্ধে, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ বাড়িয়ে বলছে’