ঢাবি শিক্ষার্থী ধর্ষণ: সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ, ১২ নভেম্বর যুক্তি উপস্থাপন শুনানি

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থী ধর্ষণ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা আবু সিদ্দিকসহ তিন জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেছেন আদালত। আর এই তিন জনের সাক্ষ্য গ্রহণের মধ্যে দিয়েই সাক্ষ্য শেষ হলো।

বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭-এর বিচারক বেগম মোসাম্মৎ কামরুন্নাহার সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। পরবর্তী সাফাই সাক্ষী ও যুক্তি উপস্থাপন শুনানির জন্য ১২ নভেম্বর দিন ধার্য করেন আদালত।

মামলার অপর দুই সাক্ষী হলেন– পুলিশ পরিদর্শক মনিরুজ্জামান ও সুবেদার শওকত আলী।

সংশ্লিষ্ট আদালতের বেঞ্চ সহকারী ইলিয়াস মিয়া গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মামলায় মোট ২০ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে।

এর আগে গত ২৬ আগস্ট ঢাকার নারী ও শিশু ট্রাইব্যুনাল-৭-এর আদালত অভিযোগ গঠন করেন। গত ১৬ আগস্ট বিচারক মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন।

গত ১৬ মার্চ মজনুকে একমাত্র আসামি করে ঢাকা মেট্রোপলিটান ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশ পরিদর্শক আবু সিদ্দিক অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলার অভিযোগপত্রে ১৬ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে।

গত ৯ জানুয়ারি ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার আসামি মজনুকে সাত দিনের রিমান্ডে পাঠান আদালত। রিমান্ড শেষে গত ১৬ জানুয়ারি আদালতে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেয় সে। জবানবন্দি শেষে তাকে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। বর্তমানে মজনু কারাগারে রয়েছে।

গত ৬ জানুয়ারি সকালে অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করে ওই ছাত্রীর বাবা ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

-আরএম

পূর্ববর্তি সংবাদপাকিস্তানের রাইবেন্ডে তাবলীগের বিশ্ব ইজতেমা ‍শুরু
পরবর্তি সংবাদইংল্যান্ডে ফের চার সপ্তাহের লকডাউন শুরু