বিএনপির দৃষ্টিসীমা ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন: সেতুমন্ত্রী

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন আমি বিএনপির বিরুদ্ধে বলি না, বলি বিএনপির মিথ্যাচার ও অপরাজনীতির বিরুদ্ধে। এমসয় তিনি বলেন, বিএনপির দৃষ্টিসীমা ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন, তাই তারা ক্ষমতায় যেতে অন্ধকারের চোরাগলি খোঁজে।

শুক্রবার (৬ নভেম্বর) জাতীয় সংসদ ভবন এলাকার সরকারি বাসভবনে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের মানুষ জিম্মি নয় বরং দেশের মানুষ এখন ঐক্যবদ্ধ হাওয়া ভবনতন্ত্রের জুলুম ও মিথ্যাচার থেকে।

বিএনপি মহাসচিব অভিযোগ করেছেন সরকার জনগণকে জিম্মি করে দেশকে অন্ধকারে দিকে ঠেলে দিচ্ছে- তার এ অভিযোগের প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, বিএনপি বরাবরের মতো সরকারের বিরুদ্ধে অবিরাম অসত্য অভিযোগের তীর ছুঁড়ে যাচ্ছে। বিএনপি দেশের অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি দেখতে পায় না বলেই সরকারের কোনো অর্জন তাদের চোখে পড়ে না।

শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্জনের গল্প বিশ্বের প্রতিটি প্রান্তে যখন প্রশংসিত তখনও বিএনপি অন্ধকার দেখে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, যাদের দেখার চোখ নেই, তারাতো চারদিকে অন্ধকার দেখবেই।

দেশের মানুষ ভালো আছেন বলেই শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ওপর তাদের আস্থা দিনদিন সুদৃঢ় হচ্ছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, তৃণমূলসহ দেশের মানুষকে উন্নতর জীবন দেওয়াই শেখ হাসিনার লক্ষ্য।

মির্জা ফখরুল সাহেব বলছেন আমি নাকি শুধু বিএনপির কথা বলি- এর জবাবে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আমি বিএনপির বিরুদ্ধে বলি না, বলি বিএনপির মিথ্যাচার ও অপরাজনীতির বিরুদ্ধে।

দেশের অব্যাহত সমৃদ্ধিতে বিএনপির চোখের কোনে বালি জমেছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, দেশের উন্নয়ন ও এগিয়ে যাওয়ার কথা তাদের কানে জ্বালা ধরায়, তারা শুধু নিজেদের অংশটুকুই শুনতে পায়। অন্য কিছু শুনতে ও দেখতে পায় না। শেখ হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের ঢোল পেটানোই এখন বিএনপির নিত্যদিনের রুটিন ওয়ার্ক।

ছাত্র জীবনে নাটক করা নিয়ে মির্জা ফখরুল সাহেবের বক্তব্য প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, তা সত্যি নয়, আমি বই লিখেছি, সাহিত্যের অন্যান্য ধারায় যুক্ত ছিলাম কিন্তু ফখরুল সাহেব ছাত্র জীবনে ভালো অভিনয় করতেন, সেই ধারাবাহিকতায় মির্জা ফখরুল সাহেব তার রাজনৈতিক জীবনে প্রভাব ফেলছে বলে মনে করছেন অনেকেই। ফখরুল সাহেব সত্যকে সত্য বলতে চান, সাদাকে সাদা আর কালোকে কালোও বলতে চান কিন্তু কোনো এক অদৃশ্য কারণে তা বলতে পারেন না। আর এজন্যই সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েও সংসদে যেতে পারেননি। ফখরুল সাহেব রাজনীতির কারণে যা বলেন, তা তিনি নিজেও বিশ্বাস করেন না বলে জনমনেও সংশয় রয়েছে।

-আরএম

পূর্ববর্তি সংবাদলিবীয় উপকূল থেকে ৩০০ অবৈধ অভিবাসী উদ্ধার
পরবর্তি সংবাদশিশুদের নকল প্রসাধনী, ৯ প্রতিষ্ঠানকে ৩৮ লাখ টাকা জরিমানা