রোহিঙ্গাসহ অনেক গোষ্ঠীকে বাদ দিয়ে মিয়ানমারে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে বাদ দিয়ে মিয়ানমারে বেসামরিক সরকারের অধীনে প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।  করোনাভাইরাস মহামারিতেও ভোটারদের ব্যাপক উপস্থিতি ছিল। দেশটিতে সামরিক শাসনের অবসানের পর এটি দ্বিতীয় নির্বাচন। রবিবার ভোট দিতে অনেক কেন্দ্রেই ভোটারদের দীর্ঘ লাইন ছিল। মিয়ানমার টাইমস জানিয়েছে, দেশজুড়ে ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণ রয়েছে। রবিবার মধ্যরাতের দিকে ভোটের ফল ঘোষণা করা হতে পারে।

ইয়াঙ্গুনে ভোটকেন্দ্র খোলার অন্তত এক ঘণ্টা আগে থেকেই ভোটাররা লাইন ধরে দাঁড়িয়েছিলেন। এই এলাকায় ৫৮ লাখের মতো ভোটার রয়েছেন। বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটারদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে দেখা যায়নি। বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোটকেন্দ্র খোলা ছিল।

মান্দালয় শহরে শান জাতিগোষ্ঠীর অনেকেই ভোট দিতে পারেননি বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে। কয়েকটি স্থানে বিক্ষিপ্ত অব্যবস্থাপনার কথা জানিয়েছে মিয়ানমার টাইমস।

রোহিঙ্গা ছাড়াও এবারের নির্বাচনে রাখানি, শান, কাচিন ও কাইন, মন ও চিন ও বাগো অঞ্চলের অনেকেই ভোট বঞ্চিত ছিলেন। এসব অঞ্চলে ভোটার সংখ্যা প্রায় ১৫ লাখ।

মিয়ানমারের সেনাপ্রধান সিনিয়র জেনারেল মিন অং হ্লাং জানিয়েছেন, সেনাবাহিনী নির্বাচনের ফল মনে নিবে। এর আগে তিনি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিলেন।

দেশটির মোট জনগণ ৫ কোটি ৬০ লাখের মধ্যে ভোট দিতে পারবেন ৩ কোটি ৮০ লাখের বেশি ভোট। জাতীয় নির্বাচনে এবার অংশ নিচ্ছে ৮৭ দল। ধারণা করা হচ্ছে এবারও ক্ষমতায় আসতে পারে অং সান সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসি (এনএলডি)।

পূর্ববর্তি সংবাদস্বাস্থ্যগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করলেন তুরস্কের অর্থমন্ত্রী বিরাত আল-বিরাক
পরবর্তি সংবাদমারা গেলেন নাফ নদীতে মিয়ানমার পুলিশের গুলিতে আহত বাংলাদেশি