ভারতে অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত ৩ শতাধিক, ১ জনের মৃত্যু

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: গত এক সপ্তাহে ভারতের অন্ধ্র প্রদেশে অজ্ঞাত এক রোগে আক্রান্ত হয়েছেন তিন শতাধিক মানুষ। ইলুরু এলাকায় এই রোগের দেখা মিলেছে। কর্তৃপক্ষ এ পর্যন্ত একজনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে। এছাড়া চিকিৎসা শেষে বাড়ি ফিরেছেন দেড় শতাধিক।

অজ্ঞাত এই রোগে আক্রান্তের সংখ্যা সোমবার রাতেই ৩৪০ ছাড়িয়ে যায়। পরীক্ষা করে দেখা গেছে, এঁরা কেউ করোনা পজ়িটিভ নন।

জানা গেছে, আক্রান্তদের সবার বমি বমি ভাব, চোখ জ্বালাপোড়া হচ্ছে এবং বার আব্র জ্ঞান হারাচ্ছেন। তাদের সবারই করোনা পরীক্ষা করার পর রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তবে আক্রান্তদের অনেকেই এরমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

ভারতীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন, এটি কোনো ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব নয়। তবে ঠিক কি কারণে এই অসুস্থতা তা জানার চেষ্টা করছেন দেশটির বিজ্ঞানীরা।

আক্রান্তরা ইলুরু শহরের বিভিন্ন অংশের বাসিন্দা। তাদের মধ্যে পাওয়া লক্ষণগুলো কিছুটা মৃগী রোগের মতো। প্রাথমিক চিকিৎসার পর ৭০ জন রোগীকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। অনেকের এখনও চিকিৎসা চলছে। আক্রান্তদের অধিকাংশই বৃদ্ধ ও শিশু। ছয় বছরের এক শিশুর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে বিজয়াওয়াদা শহরে পাঠানো হয়েছে।

চিকিৎসক দল ইলুরু শহর পরিদর্শন করেছে এবং তারা আক্রান্তদের রক্তের নমুনা সংগ্রহ করেছে। পরীক্ষায় সব কিছুই স্বাভাবিক পাওয়া গেছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আল্লা নানি জানিয়েছেন, জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলায় ইলুরুতে ১৫০ ও বিজয়াওয়াদাতে ৫০টি বেড প্রস্তুত রাখা হয়েছে। অনেকেই ১০-১৫ মিনিট পর সুস্থ হচ্ছেন।

আবার সিটিস্ক্যানেও কিছু ধরা পড়েনি। শুধু তাই নয়, আক্রান্ত হচ্ছেন আট থেকে আশি-সবাই। আপাতত সব রোগীকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। ওই এলাকার পানি থেকে এই অজানা রোগ ছড়িয়েছে কিনা সেটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তার মতে, এটি কোনো ভাইরাল ইনফেকশন হতে পারে।

-এসএন

পূর্ববর্তি সংবাদমসজিদে হামলার তদন্তে ব্যর্থ হওয়ায় ক্ষমা চাইলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী
পরবর্তি সংবাদইতিহাস বিকৃতির অভিযোগ: সাংবাদিক কনক সারওয়ারের কনটেন্ট সরাতে নির্দেশ হাইকোর্টের