কবরে মাইয়েতকে সহজে কেবলামুখী করে শোয়ানোর উপায়

কবরে রাখার পর মায়্যেতের শুধু চেহারা কেবলামুখী করে দেওয়া ভুল আমল।

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: কিছুদিন আগে একটি দাফনে শরীক হওয়ার সুযোগ হয়েছিল। মায়্যেতকে কবরে রাখার জন্য যারা কবরে নেমেছিলেন তাদের মধ্যে একজন মাওলানা সাহেবও ছিলেন। তিনি চেষ্টা করছিলেন- মায়্যেতকে ডান কাত করে কেবলামুখী করে রাখার। ভাবছিলেন, কী করা যায়! কারণ, কবরটি সেভাবে খনন করা হয়নি, যেভাবে করলে মায়্যেতকে সহজে কেবলামুখী করে রাখা যায়। এমনসময় একজন সাধারণ লোক বলে উঠল- এর দরকার কী? শুধু চেহারা কেবলামুখী করে দিন!

ঐ ব্যক্তির মত আমাদের দেশের অনেকেরই ধারণা, মায়্যেতকে কবরে রাখার সময় চিত করে শুইয়ে শুধু তার চেহারা কেবলামুখী করে দিতে হয়। তাদের এ ধারণা ভুল।

সুন্নত পদ্ধতি হল, মায়্যেতকে কবরে ডান কাত করে শুইয়ে সিনা-চেহারা কিবলার দিকে করে রাখা। প্রয়োজনে মায়্যেতকে পূর্বের দেয়ালের সাথে টেক লাগিয়ে রাখবে। যেন মায়্যেতকে সহজে ডান কাত করে রাখা যায়। কিন্তু চিত করে শুইয়ে শুধু চেহারা কিবলার দিকে ঘুরিয়ে রাখলে তা সুন্নতসম্মত হবে না। প্রসিদ্ধ তাবেয়ী ইবরাহীম নাখায়ী রাহ. বলেন-

.اسْتَقْبِلْ بِالْمَيِّتِ الْقِبْلَةَ

অর্থাৎ মায়্যেতকে কিবলামুখী করে রাখো। সুফিয়ান রাহ. বলেন-

.يَعْنِي عَلَى يَمِينِهِ كَمَا يُوضَعُ فِي اللّحْدِ

অর্থাৎ ডান কাতে রাখো, যেমনিভাবে লাহদ কবরে রাখা হয়। -মুসান্নাফে আবদুর রাযযাক, হাদীস ৬০৬০

এক্ষেত্রে একটি বিষয় লক্ষণীয়, তা হল, বিষয়টি নিয়ে যদি আগে থেকেই ভাবা হয় এবং এমনভাবে কবর খনন করা হয়, যাতে মায়্যেতকে সহজে কেবলামুখী করে রাখা যায়। যেমন, কোনো কোনো এলাকায় দেখা যায়, স্বাভাবিকভাবে কবর খনন শেষে কবরের ফ্লোরের মাঝ বরাবর কবরের মত করেই চিকন করে এক বিঘত পরিমাণ গভীর করে খনন করা হয়, ফলে মায়্যেতকে সহজেই কাত করে কিবলামুখী করে শোয়ানো যায়।

মোটকথা, কবর খননের সময়ই বিষয়টি নিয়ে ভাবা চাই। আর কোথাও যদি তা সম্ভব না হয় সেক্ষেত্রে উপরে বর্ণিত পন্থা অবলম্বন করা যায় অর্থাৎ কবরের পূর্ব দেয়ালের সাথে টেক লাগিয়ে রাখা। আল্লাহ আমাদের বিষয়টি বোঝা ও আমল করার তাওফীক দান করুন।

সূত্র: মাসিক আলকাউসার, প্রচলিত ভুল বিভাগ 

-এমএসআই

পূর্ববর্তি সংবাদবিবাড়িয়ায় র‌্যাব সদস্যকে মারধর করে কারাগারে চেয়ারম্যানপুত্র
পরবর্তি সংবাদরাজধানীতে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ২ মোটরসাইকেল আরোহী