শহর, গ্রাম ও মসজিদ ধ্বংস করে আর্মেনিয়ার সেনারা যুদ্ধাপরাধ করেছে: এরদোগান

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: আজারবাইজানের বিজয় উৎসবে যোগ দিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, আর্মেনিয়ার সেনারা যুদ্ধাপরাধ করেছেন। তারা শহর, গ্রাম ও মসজিদ ধ্বংস করেছে। তাই তাদের বিচার হওয়া উচিত। আর্মেনিয়ার সেনা অবশ্য দাবি করে, এসব ধ্বংস হয়েছে আজারবাইজানের সেনার আক্রমণে। খবর ডয়েচে ভেলের।

এসময় এরদোগান আর্মেনিয়ায় সরকার পরিবর্তন চান। তিনি তুরস্কের সঙ্গে আর্মেনিয়ার সীমান্ত খুলে দেয়ার কথাও বলেছেন।

এরদোগান বলেন, আর্মেনিয়ার জনগণ ব্যর্থ নেতৃত্বের বোঝা থেকে মুক্তি পাবে, যারা অতীতে তাদের মিথ্যা বলে বুঝিয়েছে এবং দারিদ্র্যের মধ্যে ঠেলে দিয়েছে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট জানান, আঞ্চলিক সহযোগিতা গড়ে তোলার জন্য তিনি রাশিয়া, আজারবাইজান, ইরান, জর্জিয়ার সঙ্গে কথা বলেছেন। সেখানে সম্ভব হলে আর্মেনিয়াও থাকবে।

তিনি বলেন, আজারবাইজান নিজের জমি ফিরে পেয়েছে। তবে তার মানে এই নয়, সংঘাত শেষ। যে সংঘাত রাজনৈতিক ও সামরিক ক্ষেত্রে ছিল, সেটি এবার অন্য ফ্রন্টে হবে।

প্রসঙ্গত আর্মেনিয়ার সঙ্গে যুদ্ধে সরাসরি আজারবাইজানের পক্ষ নিয়েছিল তুরস্ক। দেশটি আজারবাইজানের সামরিক ও কূটনৈতিক সাহায্য ও সমর্থন দিয়েছে।

সম্প্রতি মস্কোর মধ্যস্থতায় আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে চুক্তি হয়েছে। ফলে নাগোরনো-কারাবাখের আর্মেনীয়-বহুল এলাকার নিয়ন্ত্রণ ছাড়তে হয়েছে আর্মেনিয়াকে। এমনকি ১৯৯০-পরবর্তী সময়ে তারা যে ছয় জেলা অধিকার করেছিল, সেগুলোও আজারবাইজানকে দিয়ে দিতে হয়েছে।

আজারবাইজানের বিজয় উৎসবে যোগ দিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট আর্মেনিয়ায় সরকার পরিবর্তনের ডাক দেন। তিনি জানান, আমরা এখানে সমবেত হয়েছি, একটা অসাধারণ জয়ের উৎসব করতে।

এরদোগান জানিয়েছেন, নতুন সরকার কিছু শর্ত মানলে আজারবাইজানের সঙ্গে আঞ্চলিক সহযোগিতা হতে পারে। তিনিও তুরস্কের সঙ্গে আর্মেনিয়ার সীমান্ত খুলে দেবেন।

-এনটি

পূর্ববর্তি সংবাদবৈরুতে বিস্ফোরণের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীসহ চার মন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ
পরবর্তি সংবাদকর্ণাটকে পাশ হলো গরু জবাই নিষিদ্ধের বিল, বিধানসভা থেকে বিরোধীদের ওয়াকআউট