সৌদি-কাতার সমঝোতাকে স্বাগত জানাল তুরস্ক

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: সৌদি আরবের সঙ্গে কাতারের দীর্ঘ সাড়ে তিন বছরের বিবাদ নিরসনে সমঝোতাকে স্বাগত জানিয়েছে তুরস্ক। তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুই দেশের বিরোধ নিষ্পত্তিতে পারস্পরিক সীমান্ত খুলে দেওয়ার এই উদ্যোগ একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

সংকট নিরসনে কুয়েতের প্রচেষ্টার প্রশংসা করেছে তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। একইসঙ্গে এ ইস্যুতে কাজ করা অন্য দেশগুলোর প্রচেষ্টাকেও স্বাগত জানিয়েছে আঙ্কারা। তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমাদের প্রত্যাশা, পারস্পরিক সার্বভৌমত্বের প্রতি শ্রদ্ধার ভিত্তিতে এই বিরোধের একটি পূর্ণাঙ্গ ও স্থায়ী সমাধানে পৌঁছাতে হবে। কাতারের জনগণের বিরুদ্ধে অন্যান্য নিষেধাজ্ঞাগুলোও অবিলম্বে প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে আঙ্কারা।

২০১৭ সালের ৫ জুন কথিত সন্ত্রাসবাদে সমর্থনের অভিযোগ এনে কাতারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিসর। তবে সৌদি জোটের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে কাতার। বরং এ অবরোধকে রক্তপাতহীন যুদ্ধ ঘোষণার শামিল বলে মন্তব্য করেছেন কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মাদ বিন আব্দুররহমান আলে সানি। তার ভাষায়, সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন কয়েকটি আরব দেশ দোহার বিরুদ্ধে প্রকারান্তরে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে।

কাতারবিরোধী ওই অবরোধ প্রত্যাহারে ১৩ দফা দাবি তুলে ধরেছিল সৌদি জোট। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল আল জাজিরা টেলিভিশন বন্ধ করে দেওয়া, কাতার থেকে তুরস্কের সামরিক ঘাঁটি প্রত্যাহার এবং মুসলিম ব্রাদারহুডের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা। তবে সৌদি জোটের দাবি প্রত্যাখ্যান করে উল্টো তুরস্কের দিকে আরও বেশি ঝুঁকে পড়ে কাতার। তুরস্কও কাতারের সমর্থনে এগিয়ে আসে। বলা চলে, তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান একাই সৌদি আরবের কাতারবিরোধী অবরোধ ব্যর্থ করে দেন।

গত কয়েক মাস থেকেই কুয়েতের পাশাপাশি সৌদি-কাতার বিরোধ নিরসনে উদ্যোগী হয় ট্রাম্প প্রশাসন। রিয়াদও ইঙ্গিত দিচ্ছিল তারা দোহার সঙ্গে বিবাদ মিটিয়ে ফেলতে আগ্রহী। এসবের ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার সৌদি আরবের দিক থেকে কাতার সীমান্ত খুলে দেওয়ার কথা জানায় কুয়েত।

  ইজে

পূর্ববর্তি সংবাদআবারও লকডাউনে যাচ্ছে যুক্তরাজ্য
পরবর্তি সংবাদস্ত্রী ও পাঁচ মাসের শিশুকে বালিশচাপায় হত্যা মাদকাসক্ত স্বামীর