ভারতে ৫০ বছরের নারীকে গণধর্ষণ ও নৃশংসভাবে খুন করল মন্দিরের পুরোহিত!

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: ভারতে আবারও যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে ঘটল ভয়ংকর গণধর্ষণ। হাথরসের পর ফের গণধর্ষণ। এবার বদাউন। সেখানে রয়েছে নির্ভয়া গণধর্ষণ কাণ্ডের ছায়া। কিন্তু এবারের ঘটনা যেন সমস্ত পৈশাচিকতাকে ছাড়িয়ে গেল। ৫০ বছরের এক মহিলাকে গণধর্ষণ করল মন্দিরের পুরোহিত ও তার দুই সঙ্গি!

শুধু তাই নয়, যৌনাঙ্গে ঢুকিয়ে দিল রড। একাধিক অঙ্গ ভেঙে খুন করল তাঁকে। এই ঘটনায় দু’‌জনকে গ্রেপ্তার করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

সোমবার নির্যতিতার বাড়িতে একটি ছবি তোলা হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে, মহিলার দেহ একটি খাটিয়ায় শায়িত। হলুদ চাদরে ঢাকা শরীরের নিম্নাংশ। সেই চাদরে লেগে রয়েছে রক্তের দাহ। তাঁর পা ভাঙা।

নির্যাতিতার ছেলে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, তাঁর মা প্রায়ই মন্দিরে যেতেন। রবিবারও বিকেল পাঁচটা নাগাদ বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন। রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ মন্দিরের পুরোহিত এবং দু’‌জন একটি গাড়িতে মহিলাকে নিয়ে আসে। তার পর দরজার সামনে তাঁকে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়। তখন মহিলার শরীরে প্রাণ ছিল না।

বদাউন পুলিশ টুইটারে পরে জানায়, গণধর্ষণ এবং খুনের মামলা দায়ের হয়েছে। দু’‌জনকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। বদাউন পুলিশ প্রধান সঙ্কল্প শর্মা জানান, অভিযোগ পেয়ে গড়িমসি করার জন্য থানার ইনচার্জকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

অভিযুক্ত পুরোহিতের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেখানে সে বলছে, মহিলা মন্দিরে এসে পাশের এক কুয়োর পড়ে গেছিলেন। ‘‌আমি দু’‌জনকে ডাকি তাঁকে উদ্ধারের জন্য। তাঁকে কুয়ো থেকে বের করি। তিনি বেঁচে ছিলেন। এর পর বাড়িতে পৌঁছে দিই। তখনও তিনি বেঁচে।’‌ কখন এই ভিডিও সে রেকর্ড করল, জানা যায়নি। ‌

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

-এসএন

পূর্ববর্তি সংবাদযুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ছাগল চুরির অভিযোগ, মামলা ‘তুলে নিতে হলো’ স্কুলশিক্ষিকাকে
পরবর্তি সংবাদসাড়ে তিন বছর পর সৌদি-কাতার সমঝোতা, স্বাগত জানিয়ে যা বলল তুরস্ক