ভ্যাকসিন রফতানির জন্য প্রস্তুত হয়ে গেলে শ্রীলঙ্কাকে অগ্রাধিকারের আশ্বাস ভারতের

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: ভারতের তৈরি করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন রফতানির জন্য প্রস্তুত হয়ে গেলে সেগুলো পেতে অগ্রাধিকার পাবে শ্রীলঙ্কা। লঙ্কান প্রেসিডেন্টকে এমনটাই আশ্বাস দিয়েছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

গত বুধবার লঙ্কান প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের অনুরোধের প্রেক্ষিতে ভ্যাকসিন রফতানিতে অগ্রাধিকার দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুব্রমানিয়াম জয়শঙ্কর। এক সৌজন্য সাক্ষাতে তাদের মধ্যে এ বিষয়ে কথাবার্তা হয়েছে। দু’দিনের সফরে সম্প্রতি শ্রীলঙ্কায় গিয়েছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

জয়শঙ্কর বলেছেন, আমরা এখন করোনা পরবর্তী সহযোগিতার দিকে তাকিয়ে। আমি ভারতের ভ্যাকসিন পেতে শ্রীলঙ্কার আগ্রহ সঙ্গে নিয়ে ফিরে যাচ্ছি।

লঙ্কান পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিনেশ গুনাবর্ধনা বলেন, অভূতপূর্ব সংকটের জরুরি মুহূর্তে ভারতের ‘প্রতিবেশী প্রথম নীতি’ আমাদের স্বাস্থ্যখাতে অত্যন্ত ইতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।

অবশ্য শুধু শ্রীলঙ্কাই নয়, ভারত তাদের ওই নীতির আওতায় বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশীয় প্রতিবেশীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ভ্যাকসিন সরবরাহের আশ্বাস দিচ্ছে আগে থেকেই। চুক্তি থাকায় সৌদি আরব এবং মরক্কোও একই সময়ে পেতে পারে ভারতীয় ভ্যাকসিন।

তবে সম্প্রতি ভারত নিজেদের চাহিদা মেটাতে করোনা ভ্যাকসিন রফতানিতে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বলে খবর ছড়ানোর পর বেশ উদ্বেগ তৈরি হয়। যদিও পরে এই খবরকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। ভারত-বাংলাদেশ দুই পক্ষেরই ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, চুক্তি মোতাবেক যথাসময়েই ভ্যাকসিন রফ্তানি শুরু হবে।

গত সপ্তাহে একদিনেই দু’টি করোনা ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিয়েছে ভারতীয় প্রশাসন। একটি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি, যা উৎপাদন করছে ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট। আরেকটি ভারত বায়োটেকের নিজস্ব আবিষ্কৃত ভ্যাকসিন।

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন নিয়ে কোনও কথা না হলেও বিতর্ক শুরু হয়েছে ভারত বায়োটেকের কোভ্যাক্সিন নিয়ে। তৃতীয় ধাপের ট্রায়াল শেষ হওয়ার আগেই এর অনুমোদন দেয়ার কড়া সমালোচনা করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, এর মাধ্যমে গুরুতর স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি হতে পারে।

-এনটি

পূর্ববর্তি সংবাদসিরাজগঞ্জে পিকআপের ধাক্কায় অটোভ্যানের ২ যাত্রী নিহত
পরবর্তি সংবাদস্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা: বয়ফ্রেন্ড দিহানকে ১০ দিনের রিমান্ডে চায় পুলিশ