সিরিয়ার আফরিনে গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে হতাহত ৩১

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: উত্তর-পশ্চিম সিরিয়ার আফরিনে একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরণে কমপক্ষে ৬ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন আরও ২৫ জন। স্থানীয় সময় শনিবার (৩০ জানুয়ারি) আফরিন জেলার একটি শিল্প এলাকায় বিস্ফোরকবাহী একটি গাড়ির বিস্ফোরণে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। খবর আনাদেলু এজেন্সির।

তবে এখনও কোনও গোষ্ঠী এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। সম্ভবত এটি ওয়াইপিজি বা পিকেকে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দ্বারা পরিচালিত হয়েছে বলে ধারণা করছে স্থানীয় প্রশাসন।

স্থানীয় প্রতিরক্ষা সূত্রমতে, ওয়াইপিজি বা পিকেকে সন্ত্রাসীরা ক্রমাগতই সেখানে হামলা চালিয়ে যেতে থাকে, তবে তারা বেসামরিক লোকজনের ক্ষতি করার পরেও এর দায় স্বীকার করে না।

সন্ত্রাসবাদী এই গ্রুপটি প্রায়শই সিরিয়ার সীমান্ত সংলগ্ন তাল রিফাত এবং মনবিজ অঞ্চল থেকে জারাবুলাস, আজাজ, আফরিন এবং আল-বাবকে লক্ষ্য করে হামলা চালিয়ে থাকে।

আফরিনকে তুরস্কের সন্ত্রাসবিরোধী আক্রমণাত্মক জলপাই শাখার মাধ্যমে ২০১৮ সালে ওয়াইপিজি বা পিকেকে সন্ত্রাসীদের ব্যাপকভাবে নিধন অভিযান চালানো হয়েছিল, কিন্তু এখনও সেখানে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীটির  স্লিপার সেল বিদ্যমান।

তুরস্কের বিরুদ্ধে ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করায় পিকেকে-কে তুরস্ক, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইইউ দ্বারা সন্ত্রাসবাদী সংগঠন হিসাবে তালিকাভুক্ত করা হয়। যারা নারী, শিশুসহ প্রায় ৪০ হাজার মানুষের মৃত্যুর জন্য দায়ী।

যে কারণে তুরস্ক ২০১৬ সাল থেকে সন্ত্রাসবাদী করিডোর গঠন রোধ করতে এবং সেখানকার বাসিন্দাদের শান্তিপূর্ণ বসবাস নিশ্চিত করার জন্য উত্তর সিরিয়ায় দেশটির সীমান্ত পেরিয়ে ইউফ্রেটিস শিল্ড (২০১৬), জলপাই শাখা (২০১৮) এবং পিস স্প্রিং (২০১৯) নামে তিনটি সন্ত্রাসবিরোধী সফল অভিযান পরিচালনা করে।

ইজে