সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূতের গাড়িবহরে হামলা: ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের আসামি করে চার্জশিট

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: সাবেক মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় অভিযোগপত্র দিয়েছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ঘটনার আড়াই বছর পর গত ১৮ই ফেব্রুয়ারি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ডিবির পরিদর্শক মো. আব্দুর রউফ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের ৯ জন নেতাকর্মীকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন।

অভিযোগপত্রে তদন্ত কর্মকর্তা বলেছেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাই বার্নিকাটের গাড়িবহরে ও মামলার বাদী সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সম্পাদক বদিউল আলম মজুমদারের বাড়িতে ভাংচুর করেছে। ঘটনার রাতে বদিউল আলম মজুমদারের বাসায় মার্শা বার্নিকাট, গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনসহ আরও কয়েকজন সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্র করছেন, এমন খবর পেয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে।

অভিযোগপত্রে উল্লেখিত ৯জন ছাড়া মামলার তদন্ত করতে গিয়ে ঘটনার সঙ্গে সরকারদলীয় আরও নয় জনের সম্পৃক্ততা পেয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা। তাদের প্রকৃত নাম ঠিকানা না পাওয়াতে অভিযোগপত্রে তাদের বিস্তারিত দেয়া হয়নি। অভিযোগপত্রে বদিউল আলম মজুমদার, পুলিশ সদস্যসহ ১৯ জনকে সাক্ষী হিসাবে রাখা হয়েছে।

যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়া হয়েছে তারা হলেন, নাইমুল হাসান ওরফে রাসেল, ফিরোজ মাহমুদ, মীর আমজাদ হোসেন ওরফে আকাশ, মো. সাজু ইসলাম ওরফে সাজু, রাজিবুল ইসলাম রাজু, শহিদুল আলম খান কাজল, তান্না ওরফে তানহা ওরফে মুজাহিদ আজমি তান্না, সিয়াম ও অলি আহমেদ ওরফে জনি। অভিযোগপত্রে যাদের বিস্তারিত দেয়া হয়নি তারা হলেন, বিল্পব, নাখালপাড়ার রাজু, আতিক, টুটুল, রাহাত, ইয়ামিন, নোমান, তানভির ওরফে রাজা, এনামুল হক অনিক।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ডিবির পরিদর্শক মো. আব্দুর রউফ বলেন, গত মাসেই অভিযোগপত্রটি আদালতে জমা দিয়েছি। তদন্তে স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। আমেরিকান অ্যাম্বেসির চিহ্নিত করা হামলার মুলহোতা ইশতিয়াক মাহমুদকে অভিযোগপত্রে রাখা হয়নি কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, তদন্তের শেষ পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

-ইজে