সিরিয়ায় বিরোধীমতের লোকদের সম্পত্তি দখল করে নিচ্ছে বাশার

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : বিরোধী মতের লোকদের এবং তাদের পরিবারের সম্পদ বাজেয়াপ্ত করছে সিরিয়ার বাশার আল আসাদের সরকার। বিশেষ করে করে গৃহযুদ্ধের সময় বিরোধীদের দখলে থাকা যেসব স্থান সরকারি বাহিনীর দখলে এসেছে- সেখানে বিরোধী লোকদের সম্পদ দখল করা হচ্ছে। বিষয়টিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলো। খবর রয়টার্সের।

সিরিয়ার গৃহযুদ্ধে বাশার আল আসাদের অবস্থান সুসংহত। বিরোধীরা অনেকটাই কোনঠাসা। এরপরই ‘ল-টেন’(১০ নং আইন) নামের একটি আইনের মাধ্যমে এই কর্মকাণ্ড শুরু করেছে সরকার। মানবাধিকার সংগঠনগুলো বলছে, যুদ্ধে জড়িত নয় এমন লোকদের সম্পদও দখল করা হচ্ছে।

ভূক্তভোগী একজন জানিয়েছেন, তিনি তার বাড়ি, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান ও আবাদী জমি হারিয়েছেন। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় ঘৌতার এই বাসিন্দা পেশায় একজন স্থপতি। বাড়ি ও সম্পত্তি হারানোর পর তিনি আরো অনেকের মতো ইদলিব প্রদেশে পালিয়ে গেছেন। এভাবে আরো অনেকের সম্পত্তি দখল করে নিয়েছে সরকার।

পূর্ব ঘৌতার দৌমা শহরে বাস করতেন এক চিকিৎসক যিনি বর্তমানে আশ্রয় নিয়েছেন তুরস্কে। জানিয়েছেন, তার বাড়ি, জমি, ক্লিনিক ও গাড়ি দখল করে নিয়েছে সরকারি লোকজন। তিনি বলেন, সরকার বিরোধীদের সব কর্মকাণ্ডকে ‘সন্ত্রাস’ সাব্যস্ত করে তাদের সম্পত্তি দখল করে নিচ্ছে।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলছে, বিরোধী মতের লোকজনের সম্পদ বাজেয়াপ্ত করতে সরকার আইনকে হাতিয়ার বানিয়েছে।

পূর্ববর্তি সংবাদ‘ভোটকেন্দ্র দখলে বাধা দিলে চোখ উপড়ে ফেলা হবে’ (ভিডিও)
পরবর্তি সংবাদদৌহিত্রের স্মৃতিতে মুফতি আমিনী রহ.