নোয়াখালীতে গণধর্ষণ: অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতা রুহুল আমিন গ্রেফতার

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক রুহুল আমিনকে বুধবার রাতে সদর উপজেলার উত্তর চরওয়াপদা গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়।

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় স্বামী-সন্তানকে বেঁধে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় মূল নির্দেশদাতা ইউপি সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক রুহুল আমিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার রাতে সদর উপজেলার উত্তর চরওয়াপদা গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। একই রাতে সেনবাগ উপজেলার খাজুরিয়া গ্রাম থেকে আরো একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার নাম বেচু মিয়া। এ নিয়ে এ ঘটনায় মোট পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হলো।

বৃহস্পতিবার সকালে গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সুবর্ণচরের চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিজাম উদ্দিন।

ভোটের দিন রাতে সুবর্ণচরের চরজুবলী ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডে একটি বাড়িতে ধানের শীষে ভোট দেয়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মারধর ও গণধর্ষণের শিকার হন চার সন্তানের জননী। পরে তার স্বামী নয়জনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন।

মামলার আসামিরা হলো সোহেল (৩৫), হানিফ (৩০), স্বপন (৩৫), চৌধুরী (২৫), বেচু (২৫), বাসু ওরফে কুড়াইল্যা বাসু (৪০), আবুল (৪০), মোশাররফ (৩৫) ও সালাউদ্দিন (৩৫)। এরা সবাই সুবর্ণচরের মধ্যবাইগ্গা গ্রামের বাসিন্দা।

আরও পড়ুন : ধানের শীষে ভোট দেওয়ায় ৪ সন্তানের মাকে গণধর্ষণ

পূর্ববর্তি সংবাদবাংলাদেশের নির্বাচনে সব অভিযোগের নিরপেক্ষ তদন্ত করা উচিত : হিউম্যান রাইটস
পরবর্তি সংবাদএখনও ঝুলছে নির্বাচনী পোস্টার