পুরান ঢাকার কেমিক্যাল গুদাম : অভিযানের শুরুতেই ব্যবসায়ীদের বাধা

ইসলাম টাইমস ডেস্ক : রাজধানীর পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল গুদাম সরানোর কাজ শুরু করেছে সরকার। আজ ইসলামবাগে আবাসিক ভবন থেকে কেমিক্যাল গুদাম উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়।

এ সময় ওই এলাকার সাতটি ভবনের ইউটিলিটি সার্ভিসের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এই অভিযান চালানো হয়। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) নেতৃত্বে বিভিন্ন সংস্থার সমন্বয়ে গঠিত টাস্কফোর্স এই অভিযান চালায়।

ইসলামবাগের সাতটি বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এসব ভবনের নিচতলার কোনোটিতে গুদাম বা কারখানা ছিল। অভিযানের সময় বাড়ির মালিক বা কারখানা ও গুদামের মালিকদের পাওয়া যায়নি।

অভিযানে নেতৃত্বদানকারী ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শরীফ আহমেদ খান বলেন, বুধবার শিল্প মন্ত্রণালয়ের একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক থেকে আবাসিক ভবনের কেমিক্যাল গুদামে আপাতত সরিয়ে রাখতে দু’টি স্থান নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে ২৫ ফেব্রুয়ারি থেকে সবাইকে নিজ উদ্যোগে আবাসিক ভবন থেকে কেমিক্যাল গুদাম স্থানান্তর করতে মাইকিং করা হয়েছে। পূর্ব নির্ধারিত শিডিউল অনুযায়ী বিভিন্ন সংস্থার সমন্বয়ে গঠিত টাস্কফোর্স বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এই অভিযান শুরু করে। এ পর্যন্ত আমরা সাতটি ভবনের নিচে গুদাম পেয়েছি। সেসব বাসার ইউটিলিটি সার্ভিসসমূহ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে ।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, অভিযান চলাকালীন স্থানীয় ব্যবসায়ী ও বাসিন্দারা অভিযানের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করে। অভিযানের সময় তারা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। তবে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতি ও টাস্কফোর্স কর্মকর্তাদের কঠোর অভিযানের মুখে পিছু হঠতে বাধ্য হয় তারা।

ঢাকা জেলা প্রশাসনের একজন ম্যাজিস্ট্রেট জানান, স্থানীয়রা কেমিক্যাল গুদাম সরাতে চায় না। তারা উল্টো পুরান ঢাকাকে ব্যবসার কেন্দ্রবিন্দু হিসেবে উল্লেখ করে সাধারণ বাসিন্দাদের এখান থেকে সরে যেতে বলছে।

পূর্ববর্তি সংবাদভোটার উপস্থিতি কম হওয়ায় রাজনৈতিক দলের প্রতি সিইসির ক্ষোভ
পরবর্তি সংবাদপালাতে গিয়ে যেভাবে ধরা পড়েন ভারতীয় সেই পাইলট