একটি ভিত্তিহীন ঘটনা : নবীজীকে হুসাইন রা.-এর প্রশ্ন- নানাজী, আপনি বড় না আমি বড়?

ইসলাম টাইমস: ঘটানাটি লোকমুখে বেশ প্রচলিত। কিছু কিছু অসতর্ক বক্তার মুখে খুব চটকদার উপস্থাপনায় এ কিসসাটি শোনা যায়। কিন্তু এর নির্ভরযোগ্য কোনো সূত্র নেই। এটি একটি বানোয়াট কিসসা। ঘটানাটি হল- শোনা যায়,

একবার হাসান-হুসাইন নবীজীর সাথে খেলা করছিল। হঠাৎ হুসাইন নবীজীর কোলে বসে বলল, নানাজী! বলুন তো, আপনি বড় না আমি বড়! ছোট্ট নাতীর এমন প্রশ্ন শুনে নবীজী আশ্চর্য হলেন। বললেন, আমি বড়! হুসাইন বলল, না, আমি বড়! নবীজী বললেন, বুঝলাম তুমি বড়; কিন্তু কীভাবে?

হুসাইন তখন প্রশ্ন করল, বলুন তো আপনার পিতার নাম কী? নবীজী বললেন, আব্দুল্লাহ। হুসাইন বলল, আর আমার পিতার নাম জানেন? আমার পিতা হলেন, আসাদুল্লাহিল গালিব আলী ইবনে আবি তালিব।

হুসাইন আবার প্রশ্ন করল, আপনার মায়ের নাম কী? নবীজী বললেন, আমেনা। হুসাইন তখন বলল, আর আমার মায়ের নাম জানেন? আমার মা হলেন, সায়্যিদাতু নিসা-ই আহলিল জান্নাহ-জান্নাতের রমনীদের সরদার ফাতিমাতুয যাহরা।

হুসাইন আবার প্রশ্ন করল, আপনার নানীর নাম বলেন। নবীজী তাঁর নানীর নাম বললে হুসাইন বলল, আর আমার নানীকে চিনেন? আমার নানী হলেন ঐ নারী, যাকে আল্লাহ সালাম পাঠিয়েছেন। খাদিজাতুল কুবরা।

এবার প্রশ্ন করল, বলুন তো আপনার নানার নাম কী? নবীজী নিজের নানার নাম বললে হুসাইন বলল, আর আমার নানা কে জানেন? আমার নানা হলেন, দোজাহানের সরদার, সায়্যিদুল মুরসালীন, খাতামুন্নাবিয়্যীন মুহাম্মাদ মুস্তফা সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম।

উপরে উল্লেখিত ঘটনাটির নির্ভরযোগ্য কোনো সূত্র নেই। সুতরাং আমরা এটা বলা থেকে বিরত থাকব।

সৌজন্যে : মারকাযুদদাওয়াহ গবেষণা বিভাগ

পূর্ববর্তি সংবাদ‘বাবরি মসজিদের স্থানে রাম মন্দির নির্মানের রায় ভারতে হিন্দুত্ববাদী আগ্রাসনের অন্যতম দৃষ্টান্ত’
পরবর্তি সংবাদক্ষমতাসীনদের সিন্ডিকেটের কারণে পেঁয়াজের দাম কত বাড়বে তা কেউ জানে না : রিজভী