বরিশালে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে মোটরসাইকেল কেড়ে নেয়ার অভিযোগ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে

ইসলাম টাইমস ডেস্ক: চাঁদার দাবিতে এক ব্যবসায়ীকে মারধর করে মোটরসাইকেল কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বরিশালের মুলাদী উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতির বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় আজ বুধবার সকালে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন ওই ব্যবসায়ী।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতার নাম জুবায়ের আহম্মেদ জুয়েল। তিনি মুলাদী পৌর শহরের তেরচর এলাকার মো. শাহজাহান বেপারীর ছেলে। তেরচর এলাকার মামুন সিনেমা হলের বিপরীতে তার একটি তেলের দোকান রয়েছে।

নির্যাতিত ব্যবসায়ী রাহুল চৌধুরী বলেন, ‘তেরচর বন্দর বাজারে আমার কাঠের দোকান রয়েছে। আমার দোকান সংলগ্ন একটি চায়ের দোকানে ছাত্রলীগ সভাপতি জুবায়ের আহম্মেদ জুয়েল নেতাকর্মীদের নিয়ে মাঝে মধ্যে চা পান করতেন। সেখানে আড্ডা দিতেন। গত ২৬ অক্টোবর রাত ৮টার দিকে জুয়েল কয়েকজনকে সঙ্গে নিয়ে আমাকে বাসার সামনে থেকে ডেকে নিয়ে যায়। তারা আমাকে মোটরসাইকেলসহ তেরচর এলাকায় জুয়েলের দোকানের সামনে নিয়ে যান। এরপর দোকানের ওপর দ্বিতীয় তলার একটি কক্ষে নিয়ে আমাকে আটকে রাখেন।’

রাহুল চৌধুরী আরও বলেন, ‘ওই কক্ষটি জুয়েলের ক্লাবঘর নামে পরিচিত। কিছুক্ষণ পর সেখানে জুয়েল ও তার অনুসারী অভি প্রবেশ করেন। ওই কক্ষে জুয়েল আমাকে বলেন, মুলাদীতে ব্যবসা করতে হলে তাকে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দিতে হবে। কিন্তু টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে ক্ষিপ্ত হয়ে ক্লাবঘরে থাকা হকিস্টিক ও লাঠি দিয়ে জুয়েল ও তার অনুসারী অভি আমাকে বেদম মারধর করেন।’

ভুক্তভোগী বলেন, ‘মারধরের একপর্যায়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলি। জ্ঞান ফেরার পর আমাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে জোর করে ৩০০ টাকার নন-জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয় জুয়েল। এরপর আমার ২ লাখ ১০ হাজার টাকা মূল্যের মোটরসাইকেল, সঙ্গে থাকা কাগজপত্র কেড়ে নেয় জুয়েল ও তার সহযোগীরা। এসব ঘটনা কাউকে না জানাতে হুমকি দিয়ে আমাকে ছেড়ে দেন। পরে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিই। বেশকিছু দিন অসুস্থ ছিলাম।’

এ বিষয়ে জুবায়ের আহম্মেদ জুয়েলচাঁদা দাবির অভিযোগ অস্বীকার করেন। তিনি জানান, ষড়যন্ত্র করে তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ করা হয়েছে। তিনি নগদ টাকা দিয়ে রাহুল চৌধুরীর কাছ থেকে মোটরসাইকেলটি ক্রয় করেছেন। মারধরের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

মুলাদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফয়েজ উদ্দিন জানান, তেরচর বন্দর বাজারের রাহুল চৌধুরী নামে এক কাঠ ব্যবসায়ী থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের আহম্মেদ জুয়েল ও অভি নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবির অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করতে থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুজিবুর রহমানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

মুলাদী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুজিবুর রহমান জানান, চাঁদাবাজির অভিযোগটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ইজে

পূর্ববর্তি সংবাদবিভিন্ন সময়ে দেশে যারা ভাস্কর্য-মূর্তি ভাঙচুর করেছে
পরবর্তি সংবাদভাস্কর্য নিয়ে নওমুসলিম যুবকের স্ট্যাটাস ভাইরাল